Beta

শহিদ কাপুরের বিলাসবহুল বাড়ির দাম কত জানেন?

৩০ আগস্ট ২০১৯, ০০:১৭

অনলাইন ডেস্ক
বলিউড তারকা শহিদ কাপুর ও তাঁর স্ত্রী মীরা রাজপুত। ছবি : ইনস্টাগ্রাম

ভারতের মুম্বাইয়ের ওরলিতে সমুদ্রের পাশে অ্যাপার্টমেন্ট কিনেছেন বলিউড তারকা শহিদ কাপুর। নির্মাণকাজও শেষ। বিলাসবহুল ফ্ল্যাটে এবার নতুন করে সংসার শুরু করবেন এ তারকা।

কদিন আগেই কন্যা মিশার তৃতীয় জন্মদিন ঘটা করে পালন করেছেন শহিদ কাপুর ও স্ত্রী মীরা রাজপুত। ব্যক্তিগত জীবনের নানা অনুষঙ্গ নিয়ে এ দম্পতি খবরের শিরোনাম হন। এবার নতুন বাড়ির জন্য শিরোনাম হলেন।  

হিন্দুস্তান টাইমসের প্রতিবেদন জানিয়েছে, ২০১৮ সালে নিজের পরিবারের জন্য একটি নতুন অ্যাপার্টমেন্ট কেনেন শহিদ কাপুর। মুম্বাই মিররের সাম্প্রতিক প্রতিবেদন বলছে, সেই বাড়িতে যাওয়ার জন্য প্রস্তুত শহিদ।

 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 

Happy Sunday.

A post shared by Shahid Kapoor (@shahidkapoor) on

প্রতিবেদনে বলা হয়, চার সদস্যের পরিবার নিয়ে ওরলিতে প্রায় আট হাজার স্কয়ার ফুটের ওই বিলাসবহুল অ্যাপার্টমেন্টে যাওয়ার জন্য প্রস্তুত শহিদ। চলতি বছরের শেষের দিকে ওই বাড়িতে উঠতে পারেন।

ওই বিলাসবহুল অ্যাপার্টমেন্টে রয়েছে ৫০০ স্কয়ার ফুটের একটি ব্যালকনি। যেখান দাঁড়ালে দেখা যাবে সমুদ্রের নীল জল। পাশাপাশি অ্যাপার্টমেন্টের মধ্যে রয়েছে স্পা, সুইমিংপুল, জিম, বলরুমসহ আরো অনেক কিছু।

এর আগে ডিএনএ প্রতিবেদনে জানিয়েছিল, বাড়ির দাম বাবদ ৫৬ কোটি রুপি দিয়েছেন শহিদ কাপুর। ২০১৮ সালের ১২ জুলাই শহিদ পঙ্কজ কাপুর ও মীরা শহিদ কাপুরের নামে বাড়িটি নিবন্ধন করা হয়। গাড়ি পার্কিংয়ের জন্য ছয়টি পার্কিং স্পট পেয়েছেন শহিদ।

খবরে প্রকাশ, অক্ষয় কুমার, দীপিকা পাডুকোন-রণবীর সিং, অভিষেক বচ্চনরাও ওরলির ওই টাওয়ারের বিভিন্ন তলার ফ্ল্যাটে থাকেন। সেখানে সংসার পাতিয়েছেন বিরাট কোহলি-আনুশকা শর্মাও। এবার সেই তালিকায় যুক্ত হলো শাহিদ কাপুর ও মীরা রাজপুতের নাম।

 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 

Getting approvals from big daddy. #papaknowsbest ##specialmoments

A post shared by Shahid Kapoor (@shahidkapoor) on

শহিদ কাপুর তাঁর পরিবার নিয়ে এখন জুহুর বাড়িতে থাকেন। ২০১৫ সালে মীরা রাজপুতকে বিয়ে করেন শহিদ। ২০১৬ সালে তাঁদের প্রথম সন্তান মিশার জন্ম হয়। গত বছরের সেপ্টেম্বরে জন্ম হয় দ্বিতীয় সন্তান জেইন।

শহিদ কাপুরের সর্বশেষ চলচ্চিত্র ‘কবির সিং’ ব্লকবাস্টার হয়েছে। বক্স অফিসে সব মিলিয়ে ৩০০ কোটি রুপির বেশি আয় করেছে ছবিটি। মুম্বাই মিররের আরেক প্রতিবেদনে বলা হয়েছিল, এ ছবির সাফল্যের পর নিজের পারিশ্রমিক বাড়িয়ে দিয়েছেন শহিদ। এখন থেকে প্রতি সিনেমায় ৩৫ কোটি রুপি করে নেবেন এ তারকা।

Advertisement