Beta

‘শাহরুখ ভালো, আরো ভালো টুইঙ্কেলের নাভি!’

২৮ আগস্ট ২০১৯, ০১:০৭

অনলাইন ডেস্ক
শাহরুখ-টুইঙ্কেলের ‘বাদশাহ’ ছবির ২০ বছর পূর্তি আজ। ছবি : সংগৃহীত

জনপ্রিয় লেখক ও নিবন্ধকার হওয়ার আগে বলিউডে সংক্ষিপ্ত যাত্রা ছিল অক্ষয় কুমারের স্ত্রী টুইঙ্কেল খান্নার। নিজেকে সব সময় তিনি ‘ভয়াবহ অভিনেত্রী’ বলেছেন। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে খুব সক্রিয় টুইঙ্কেল। যত রসালোই হোক, কৌতুক করতে বাধে না তাঁর। এবারও কৌতুক করে ট্রেন্ড তালিকায় উঠে এলেন অক্ষয়পত্নী।

হিন্দুস্তান টাইমস প্রতিবেদনে জানিয়েছে,  বলিউড সুপারস্টার শাহরুখ খান ও টুইঙ্কেল খান্নার ব্লকবাস্টার ‘বাদশাহ’র ২০ বছর পূর্ণ হয়েছে আজ। ১৯৯৯ সালের ২৭ আগস্ট মুক্তি পায় আব্বাস-মুস্তান পরিচালিত এ ছবি। ছবির ২০ বছর পূর্তি উপলক্ষে নিজের সিনেমার একটি রিভিউ ভক্তদের সঙ্গে শেয়ার করেছেন টুইঙ্কেল। সেখানেই রসালো কৌতুক তাঁর।

সেই রিভিউতে শুধু টুইঙ্কেলের প্রশংসাই ছিল না, নায়িকার ‘নাভি’র কথা বিশেষভাবে উল্লেখ ছিল।

ছবি ও ভিডিও শেয়ারের জনপ্রিয় মাধ্যম ইনস্টাগ্রামে সেই রিভিউর একটি স্থিরচিত্র শেয়ার করেছেন টুইঙ্কেল খান্না। কৌতুক করে লিখেছেন, ‘বলেছিলাম না, ভালো রিভিউ পাইনি? পেয়েছি এবং সেটা আমার শরীরের আকর্ষণীয় অংশ নিয়ে! ২০ বছর পূর্তিতে আমি বলতে চাই, বাদশাহ যুগল আজও তেমনটাই রয়ে গেছে—শাহরুখের সেই টোল আজও আছে আর আমারও আছে সেই সুন্দর নাভি!’

বলিউডের নামকরা ফ্যাশন ডিজাইনার মণীষ মালহোত্রা ওই রিভিউটি পাঠিয়েছিলেন টুইঙ্কেলের কাছে। আর তাই তাঁর প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাতেও ভোলেননি। ক্যাপশনে মণীষকে ট্যাগ দিয়ে লিখেছেন, ‘ধন্যবাদ এটা পাঠানোর জন্য। আমার সকালটা উজ্জ্বল হলো।’

ওই রিভিউতে লেখা রয়েছে, ‘ছবির গান অনু মালিক দারুণ করেছে। শাহরুখও খুব ভালো। তবে যেটা সবচেয়ে ভালো, এই গানে টুইঙ্কেলের নাভি খুব সুন্দর করে দেখানো হয়েছে। খুব কাছ থেকে সবাই টুইঙ্কেলের নাভি দেখতে পেয়েছে।’

ইন্ডিয়া টুডের প্রতিবেদন অনুযায়ী, একবার ‘কফি উইথ করণ’-এ নিজের অভিনয় ক্যারিয়ার নিয়ে মুখ খুলেছিলেন টুইঙ্কেল খান্না। বলেছিলেন, “আমি ভয়াবহ অভিনেত্রী ছিলাম। যেসব মানুষ ‘মেলা’ দেখেছেন, তাঁরা জানেন, এ ছবি ফ্লপ হয়েছিল শুধু আমার কারণে। আমি এমন কিছু করেছিলাম, যা এর আগে আর কেউ করেনি। (নিজের কণ্ঠ নকল করে) ‘রুপা, আঁখে দেখো, রুপা’—এ ধরনের আর কি।”

যা হোক, ‘বাদশাহ’ ছবিটি দারুণ ব্যবসা করেছিল বক্স অফিসে। এ ছবিতে শাহরুখ-টুইঙ্কেল ছাড়াও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকায় ছিলেন জনি লিভার, রাখি ও অমরেশ পুরি।

Advertisement