Beta

ঈদে আনন্দ দেননি বরং কাঁদিয়েছেন শাকিব-ববি

০৬ জুন ২০১৯, ১৫:১১ | আপডেট: ০৬ জুন ২০১৯, ১৫:১৫

‘ঈদের দিনটা আমরা আনন্দ করেই কাটাতে চেষ্টা করি। বৃষ্টির জন্য সারা দিন বাসা থেকে বের হতে পারিনি। সন্ধ্যায় বউ নিয়ে বসুন্ধরা সিনেপ্লেক্সে ‘নোলক’ ছবিটি দেখেছি। ছবি শেষ করে আমরা কেউ-কারো সঙ্গে কথা বলতে পারিনি। অনেক্ষণ মন খারাপ ছিল। ঈদে আনন্দ দেননি বরং কাঁদিয়েছেন শাকিব- ববি।’ এনটিভি অনলাইনকে কথাগুলো বলেন ব্যাংকার আব্দুল হক। গতকাল রাতে বসুন্ধরা সিনেপ্লেক্সে ‘নোলক’ ছবি দেখে এমন মন্তব্য করেন তিনি।

শাকিব-ববি অভিনীত, সাকিব-সনেট প্রযোজিত ‘নোলক’ ছবিটি মুক্তি পেয়েছে দেশের ৭৭টি সিনেমা হলে।

ব্যাংকার আব্দুল হকের স্ত্রী সাবিনা আখতার বলেন, “বিয়ের আগে নিয়মিত সিনেমা দেখতাম। চার বছর আগে আমাদের বিয়ে হয়েছে। এখন উৎসবগুলোতে স্বামীর সাথে ছবি দেখি। কোনো ছবি ভালো করলে সেটিও দেখি। শাকিব খান আমার প্রিয় নায়ক। সব সময় উনার ছবি আমার ভালো লাগে, অনেক আনন্দ পাই। তবে এবার ছবিটি দেখে মনটা সত্যি খারাপ হয়েছে। ছবির শেষ দৃশ্যে চোখের পানি ধরে রাখতে পারিনি। এর আগে  সিনেপ্লেক্সে ‘দেবী’ ছবিটি দেখেছি। এই ছবিটি দেখার পর মনে হলো আমাদের চলচ্চিত্র সত্যি এগিয়ে যাচ্ছে।”

জোনাকি সিনেমা হলে চলছে  ‘নোলক’। সিনেমা হলের টিকেটম্যান রঞ্জন বাবু বলেন, ‘ছবির শুরুটা অনেক হাস্যরসের হলেও শেষে দিকে দর্শক কাঁদছে। ৪৫ বছর ধরেই সিনেমা হলে চাকরি করছি। অভিজ্ঞতা বলে এমন ছবি দর্শক সব সময়ই পছন্দ করেছে। তবে গতকাল সকালের শোতে তেমন দর্শক হয়নি। বিকেল থেকে দর্শক এসেছে। এমনকি বিশ্বকাপ খেলার সময়ও দর্শক ছিল। আজ সকাল সাড়ে ১১টা থেকে আমরা শো শুরু করেছি। সিনেমা হলে দর্শক আসছে। ছবিটি দেখে সবাই প্রশংসাও করছে।’ 

নায়িকা ববি বলেন, ‘ঈদের দিন সারা দেশের বিভিন্ন জায়গাতে বৃষ্টি এবং বাংলাদেশের ক্রিকেট ম্যাচ থাকায় দর্শক কিছুটা কম ছিল। আমার সঙ্গে সিনেমা হল সংশ্লিষ্টদের কথা হয়েছে। তারা বলেছেন- সবমিলে দর্শক ভালোই ছিল। ছবির প্রথম ভাগে দর্শক যেমন হেসেছেন ঠিক তেমনি বিরতির পর ছবি দেখে কেঁদেছেন। আমরা ঈদে মৌলিক গল্পের একটি ভালো ছবি দর্শকদের উপহার দিতে পেরে আনন্দিত।’

‘নোলক’ ছবিতে ববির বিপরীতে রয়েছেন  শাকিব খান। ববি-শাকিব জুটির পঞ্চম ছবি এটি। পারিবারিক গল্পের ছবিতে আরো অভিনয় করেছেন তারিক আনাম খান, নিমা রহমান, ওমর সানী, মৌসুমী, শহীদুল আলম সাচ্চু, রেবেকা, ভারতের রজতাভ দত্ত, সুপ্রিয় দত্ত।  পরিচালনায় সাকিব-সনেট অ্যান্ড টিম। কাহিনী, সংলাপ ও চিত্রনাট্য করেছেন ফেরারী ফরহাদ। ঈদের দিন থেকে সারা দেশের প্রায় ৭৭টি প্রেক্ষাগৃহে ছবিটি প্রদর্শিত হচ্ছে।

Advertisement