Beta

শাহরুখের বিলাসবহুল বাড়িটি কেন কেনেননি সালমান?

২৭ মে ২০১৯, ১১:২০

অনলাইন ডেস্ক
শাহরুখের বাড়ি কেনার প্রথম প্রস্তাব পেয়েছিলেন সালমান। ছবি : সংগৃহীত

মুম্বাইয়ের বিখ্যাত বিলাসবহুল বাড়ি ‘মান্নাত’। এই বাড়িটির গর্বিত মালিক বলিউড বাদশাহ শাহরুখ খান। পত্রপত্রিকার খবর, এই রাজকীয় বাংলোবাড়িটি কেনার জন্য প্রথমে প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল বলিউড ভাইজান সালমান খানকে।

প্রতিবেদন অনুযায়ী, শাহরুখের কাছে মান্নাত বিক্রির আগে সালমানকে প্রথম প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল, কিন্তু সেই প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করে দেন ভাইজান। প্রতিবেদন আরো জানায়, এক সাক্ষাৎকারে সালমানকে জিজ্ঞেস করা হয়েছিল, কেন তিনি বিলাসবহুল বাড়িটি কেনেননি। উত্তরে এই মহাতারকা বলেছিলেন, বাবা সেলিম খান বাড়িটি কেনার অনুমতি দেননি। বাবার অনুমতি ছাড়া তিনি সেটি কিনতে পারেন না।

সালমান খান বলেছিলেন, এত বড় বাড়ি কিনতে চাননি তাঁর বাবা। তাই সেই প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করেছিলেন। পরে শাহরুখ খান ওই বিখ্যাত বাড়িটি কিনে নেন।

একই সাক্ষাৎকারে সালমান খান বলেছিলেন, শাহরুখ খানকে জিজ্ঞেস করতে তাঁর খুব ইচ্ছে হয়, এত বড় বাংলোবাড়িটি তিনি কীভাবে সদ্ব্যবহার করেন। সালমান খান তাঁর পরিবারসহ ‘গ্যালাক্সি অ্যাপার্টমেন্টে’ থাকেন।

সম্প্রতি কয়েকটি পত্রপত্রিকার খবর, শাহরুখ খানের বাড়িতে বেশ কয়েকবার বেড়াতে গিয়েছেন সালমান খান ও আরেক সুপারস্টার আমির খান। শাহরুখের বাড়িতে তাঁদের বারবার যাওয়া-আসায় বি-টাউনে চাউর, তিন খান মিলে বড় কোনো প্রকল্পে হাত দিতে চলেছেন। যা হোক, এখনো অবশ্য কোনো পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিক ঘোষণা আসেনি।

সালমান খান এখন ‘ভারত’ সিনেমার প্রচারণা নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন। চলতি বছরের বহুল প্রতীক্ষিত সিনেমা এটি।

আসন্ন ‘ভারত’ সিনেমায় সালমান খানের সঙ্গে জুটি বেঁধেছেন ক্যাটরিনা কাইফ। আলি আব্বাস জাফর পরিচালিত এই সিনেমা মুক্তি পাবে এবারের ঈদুল ফিতরে।

এ ছবি দিয়ে ক্যাটরিনা কাইফের সঙ্গে পুনর্মিলন হচ্ছে সালমানের। সিনেমাটি দেখার জন্য মুখিয়ে আছেন ভক্তরা। ‘ভারত’-এ সালমান-ক্যাটরিনা ছাড়াও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকায় দেখা যাবে দিশা পাটানি, টাবু, নোরা ফাতেহি, সুনীল গ্রোভার, জ্যাকি শ্রফসহ অন্যদের।

দক্ষিণ কোরিয়ার চলচ্চিত্র ‘অ্যান ওডে টু মাই ফাদার’-এর রিমেক ‘ভারত’। ষাটের দশকের সার্কাসের ওপর নির্মিত এ ছবি। একজন সাধারণ মানুষের জীবনকে কেন্দ্র করে ভারতের ইতিহাসও বর্ণিত হবে এই ছবিতে। ৫ জুন পর্দায় উঠবে ছবিটি। সূত্র : ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস টাইমস

Advertisement