Beta

শোবিজে যৌন হেনস্তা নিয়ে তনুশ্রীর শর্টফিল্ম

২৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৮:৫০

অনলাইন ডেস্ক
সাবেক মিস ইন্ডিয়া ও অভিনেত্রী তনুশ্রী দত্ত। ছবি : সংগৃহীত

ভারতে যৌন নিপীড়নবিরোধী আন্দোলন ‘হ্যাশট্যাগ মি টু’ ছড়িয়ে দেওয়ার পর সাবেক বিউটি কুইন ও বলিউড অভিনেত্রী তনুশ্রী দত্ত যৌন হেনস্তার ওপর নির্মিত একটি স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র মুক্তি দিতে চলেছেন।

বলিউডে যৌন হেনস্তাই এই শর্টফিল্মের প্রেরণা। রুপালি পর্দায় সেই গল্পই তুলে ধরা হবে। আগামী ৮ মার্চ আন্তর্জাতিক নারী দিবসে চলচ্চিত্রটি মুক্তি পাবে।

শর্টফিল্মটির সংলাপ নিজেই লিখেছেন বঙ্গতনয়া তনুশ্রী দত্ত। শোবিজে যৌন হেনস্তার ওপর এই ছবির মুক্তি হতে চলায় বেশ উত্তেজিত তিনি। কীভাবে তরুণীরা ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে নিঃশেষিত হয়, তার গল্প তুলে ধরা হবে ছবিটিতে।

‘কোনোপ্রকার পথপ্রদর্শক ছাড়া শোবিজসহ অন্যান্য ক্ষেত্রে নবাগত তরুণীরা কীভাবে ধ্বংসের মুখোমুখি হচ্ছেন, তা নিয়ে নির্মিত এ ছবি’, সংবাদমাধ্যম মিড ডে-কে জানালেন তনুশ্রী।

২০১৮ সালের অক্টোবরে ‘আশিক বানায়া আপনে’ খ্যাত তনুশ্রী দত্ত অভিযোগ করেছিলেন, ১০ বছর আগে ‘হর্ন ওকে প্লিজ’ ছবির শুটিং সেটে বর্ষীয়ান অভিনেতা নানা পাটেকার তাঁকে যৌন নিপীড়ন করেছিলেন। ওই ঘটনার পর তিনি ছবির দুনিয়া থেকে দূরে সরে যান। তবে নানা পাটেকার বলেন, তনুশ্রীর অভিযোগ সম্পূর্ণ বানোয়াট।

তনুশ্রীর অভিযোগের পর ভারতজুড়ে মি টু আন্দোলন ছড়িয়ে পড়ে। হেনস্তাকারী হিসেবে একে একে উঠে আসে বহু তারকা অভিনেতা-পরিচালকের নাম।

১০ বছর আগে ওই ঘটনার পর শোবিজ থেকে দূরে সরে যান বলে জানান বঙ্গললনা তনুশ্রী দত্ত। চলে যান যুক্তরাষ্ট্রে। তাঁকে শেষবার বড় পর্দায় দেখা গিয়েছিল ২০১০ সালে, ‘অ্যাপার্টমেন্ট’ ছবিতে। সূত্র : ইন্ডিয়া টিভি

Advertisement