Beta

কাদের খানের মৃত্যুতে বলিউডজুড়ে শোক

০১ জানুয়ারি ২০১৯, ১৫:৫৮

অনলাইন ডেস্ক
বর্ষীয়ান অভিনেতা, চিত্রনাট্যকার কাদের খান আর নেই। ছবি : সংগৃহীত

বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেতা কাদের খানের মৃত্যুতে শোকে মুহ্যমান চলচ্চিত্র দুনিয়া। সোমবার কানাডার একটি হাসপাতালে তাঁর মৃত্যু হয়। কাদের খানের বয়স হয়েছিল ৮১ বছর।

বর্ষীয়ান এ অভিনেতার আত্মার সদগতি কামনা ও শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন চলচ্চিত্র অঙ্গনের তারকাসহ অভিনেতা ও কুলাকুশলীরা।

কাদের খানের সঙ্গে ‘শাহেনশাহ’সহ বেশ কয়েকটি সিনেমায় একসঙ্গে কাজ করেন মেগাস্টার অমিতাভ বচ্চন। বর্ষীয়ান এ অভিনেতার মৃত্যুতে সমবেদনা জানিয়েছেন তিনি।

মাইক্রো-ব্লগিং সাইট টুইটারে এক শোকবার্তায় বিগ বচ্চন লিখেছেন, ‘কাদের খান নেই, এ খবর খুবই কষ্টের... আমার প্রার্থনা ও সমবেদনা... একজন অসাধারণ মঞ্চশিল্পী, চলচ্চিত্র অঙ্গনের মেধাবী, দয়াবান আর প্রতিষ্ঠিত শিল্পী... অসাধারণ লেখক, আমার সফল সিনেমাগুলোর একজন তিনি... একজন আনন্দদায়ক সঙ্গী এবং একজন গণিতবিদ!’

অভিনেতা মনোজ বাজপেয়ি লিখেছেন, ‘চিরশান্তিতে থাকুন, কাদের খান সাহেব।’

‘নমস্তে ইংল্যান্ড’ অভিনেতা অর্জুন কাপুর সমবেদনা জানিয়ে লিখেছেন, ‘একজন অভিনেতা ও লেখক, যিনি একটি প্রজন্মকে এগিয়ে নিয়ে গেছেন। আপনার এই শূন্যতা পূরণ হওয়ার নয়... চিরশান্তিতে থাকুন। পরিবারের সদস্যদের প্রতি হৃদয়ের অন্তস্তল থেকে প্রার্থনা।’

বিশিষ্ট চলচ্চিত্র নির্মাতা মধুর ভান্ডারকার সমবেদনা জানিয়ে লিখেছেন, ‘বহুমুখী প্রতিভার অধিকারী লেখক, অভিনেতা, কমেডিয়ান কাদের খানের মৃত্যুসংবাদে বেদনাহত। তিনি একই সঙ্গে আমাদের হাসিয়েছেন, কাঁদিয়েছেন। তির্যক সংলাপ দিয়ে আমাদের বিনোদন দিয়েছেন তিনি।’

‘সুই ধাগা’ অভিনেতা বরুণ ধাওয়ানও শোক জানিয়েছেন। বলেছেন, কাদের খান ছিলেন তাঁর প্রেরণা। তাঁর বাবা ডেভিড ধাওয়ানের সিনেমায়ও সীমাহীন অবদান রেখেছেন তিনি। ‘আমরা সবাই আপনাকে সত্যিই খুব মিস করব,’ লেখেন বরুণ।

১৯৩৭ সালের ২২ অক্টোবর আফগানিস্তানের কান্দাহারে জন্ম হয় কাদের খানের। প্রথম জীবনে সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং নিয়ে পড়াশোনা করেন এই অভিনেতা। এরপর ভারতে চলে যান তিনি। ভারতে বাইকুল্লার এম এইচ সাবু সিদ্দিক কলেজে সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজে শিক্ষকতাও করেন তিনি।

১৯৭৩ সালে যশ চোপড়া পরিচালিত এবং  রাজেশ খান্না অভিনীত ‘দাগ’ ছবির মাধ্যমে ‌ বলিউডে অভিষেক ঘটে কাদের খানের। তিন শতাধিক ছবিতে অভিনয় করেন তিনি। যার মধ্যে উল্লেখযোগ্য চলচ্চিত্র হলো ‘আদালত’, ‘বৈরাগ’, ‘খুন পাসিনা’, ‘ছালিয়া বাবু’, ‘পারভারিশ’, ‘চোর সিপাহি’, ‘সত্তে পে সত্তা’।

অভিনয়ের পাশাপাশি সংলাপ লেখায়ও কাদের খান ছিলেন বেশ দক্ষ। ১৯৭০-৮০-এর দশকে প্রায় ২৫০টি ছবির সংলাপ লিখেছেন তিনি। সেরা সংলাপ, সেরা কৌতুক অভিনেতা হিসেবে বহুবার ফিল্মফেয়ার পুরস্কার পেয়েছেন এই অভিনেতা। সূত্র : ইন্ডিয়া টুডে।

Advertisement