Beta

২০১৮ : যাঁদের নিয়ন্ত্রণে ছিল ডিজিটাল দুনিয়া

২৯ ডিসেম্বর ২০১৮, ১৮:৫৬

অনলাইন ডেস্ক
২০১৮ সালে জয়জয়কার ছিল ওয়েব সিরিজের। ছবি : ডিএনএ

রুপালি পর্দার পাশাপাশি ডিজিটাল দুনিয়ায়ও অসংখ্য দর্শক রয়েছে। বলিউডের অনেক তারকাই ডিজিটাল দুনিয়ায় ঝড় তুলেছেন। বিনোদনের নতুন মাধ্যম হিসেবে এখন ওয়েব সিরিজের জয়জয়কার। বিশ্বব্যাপী বাড়ছে জনপ্রিয়তা।

চলতি বছরে বলিউডের বেশ কয়েকজন তারকা ডিজিটাল দুনিয়ায় অগ্রগণ্য ছিলেন। সাইফ আলি খান, নওয়াজুদ্দিন সিদ্দিকি, রাধিকা আপ্তে থেকে শুরু করে মিথিলা পালকার, সবার উপস্থিতি ছিল নতুন এ মাধ্যমে।

সাইফ-নওয়াজ

নেটফ্লিক্সে মুক্তি পায় সাইফ আলি খান ও নওয়াজুদ্দিন সিদ্দিকি অভিনীত ‘স্যাকরেড গেমস’। এই ওয়েব সিরিজটি ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মে ক্রীড়নকের ভূমিকা পালন করেছে। বিক্রম চন্দ্রের একটি উপন্যাস অবলম্বনে নির্মিত এ ওয়েব সিরিজ ডিজিটাল দুনিয়ায় ব্যাপক হিট করে। অসাধারণ গল্প আর চরিত্রের কারণে অপরাধবিষয়ক রোমাঞ্চকর ‘স্যাকরেড গেমস’ সবার আগ্রহের কেন্দ্রে ছিল। প্রথম কিস্তির সাফল্যের পর এবার দ্বিতীয় কিস্তির অপেক্ষা করছেন দর্শক।

পঙ্কজ ত্রিপাঠি

শুধু ‘স্যাকরেড গেমস’ই নয়, চলতি বছরে পঙ্কজ ত্রিপাঠির ‘মির্জাপুর’ ওয়েব সিরিজটিও ব্যাপক জনপ্রিয়তা পায়। এতে অসাধারণ পারফরম্যান্স দেখান পঙ্কজ। শান্ত মেজাজের গ্যাংস্টারের ভূমিকায় পঙ্কজ ত্রিপাঠির ‘কলিন ভাইয়া’ চরিত্রটি দীর্ঘদিন স্মরণে রাখবেন দর্শক।

আলি ফজল

চলতি বছরে দর্শকের কাছে এক বিস্ময় ছিল অভিনেতা আলি ফজল। ওয়েব সিরিজ ‘মির্জাপুর’-এ তাঁর চরিত্রটিও দর্শকের মনোযোগ আকর্ষণে সক্ষম হয়েছে। গ্যাংস্টার গুড্ডু পণ্ডিতের চরিত্রে অসাধারণ অভিনয় করেছেন ফজল। গুড্ডু হত্যার উৎসবে মাতাল এক চরিত্র। এ চরিত্রের জন্য আলি দশ কেজি ওজন বাড়ান। পর্দায় এটিই প্রথম তাঁর নেতিবাচক চরিত্র।

ধ্রুব-মিথিলা

ডিজিটাল দুনিয়ায় ধ্রুব সিগাল ও মিথিলা পালকারকে কেউ এড়াতে পারবেন না। জীবনীভিত্তিক শো ‘লিটল থিংস’ ইতিমধ্যেই বেশ জনপ্রিয় হয়েছে। প্রথম মৌসুমেই দর্শকের হৃদয় হরণ করেছেন ধ্রুব ও মিথিলা। দ্বিতীয় মৌসুমও ছিল আলোচনায়। ভালোবাসার মিষ্টি গল্প দিয়ে সাজানো হয়েছিল ‘লিটল থিংস সিজন-২’।

রাধিকা আপ্তে

ডিজিটাল দুনিয়া অসম্পূর্ণ থেকে যাবে, যদি এ তালিকায় না থাকেন ভিন্নধর্মী চরিত্রে অভিনয়ের জন্য খ্যাত রাধিকা আপ্তে। তাঁকে এখন ‘ডিজিটাল কুইন’ বলছেন সবাই। তাঁর স্বল্পদৈর্ঘ্যের সিনেমা আর ভিডিওগুলো মনোযোগ কেড়েছে দর্শক ও সমালোচকদের। রুপালি পর্দা ও ডিজিটাল মাধ্যমে ২০১৮ সালে বেশ কয়েকটি সেরা কাজ করেছেন রাধিকা। নেটফ্লিক্সে মুক্তি পাওয়া হরর সিরিজ ‘ঘৌল’ অন্যতম সেরা। এতে সেনার চরিত্রে অভিনয় করে খ্যাতি কুড়িয়েছেন রাধিকা। আর ‘স্যাকরেড গেমস’-এ পুলিশ চরিত্রটি তাঁকে ডিজিটাল দুনিয়ার রানির তকমা দিয়েছে।

আর মাধবন

মেধাবী অভিনেতা আর মাধবন ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মে খ্যাতি কুড়িয়েছেন। আমাজন প্রাইমে মুক্তি পাওয়া ‘ব্রিথ’ দর্শকের নজর কেড়েছে। এতে আরো অভিনয় করেছেন অমিত সাধ। এ সাইকোলজিক্যাল ড্রামায় দুর্দান্ত পারফর্ম করেছেন তাঁরা।

গুলশান দেবাইয়া

চলতি বছরে রোমাঞ্চ, সংঘাত আর রহস্যে ভরপুর ছিল ডিজিটাল দুনিয়া। ‘স্মোক’ সিরিজে হাজির হয়েছিলেন দুর্দান্ত সব অভিনেতা। কালকি কোয়েচলিন, গুলশান দেবাইয়া, জিম সর্ভ, অমিত সাইয়াল, মন্দিরা বেদি ও টম অলটার অসাধারণ অভিনয় করেছেন। তবে সবার মনোযোগ ছিল গুলশান দেবাইয়ার চরিত্র জেজের দিকে। খুনে চরিত্রে দুর্দান্ত অভিনয় করেছেন গুলশান।

বলিউডের নামকরা তারকারাও ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মে অভিনয়ের ইচ্ছে প্রকাশ করেছেন। নতুন বছরে দর্শক তাঁদের প্রিয় সুপারস্টারদের দেখতে পাবেন, এ সম্ভাবনাই বেশি। সূত্র : ডিএনএ।

Advertisement