Beta

টাকার অভাবে চিকিৎসা নিতে পারছেন না কাঙালিনী সুফিয়া

০৭ ডিসেম্বর ২০১৮, ১৬:৩৬

সংগীতশিল্পী কাঙালিনী সুফিয়া। ছবি : এনটিভি

সাভারের একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি আছেন বাংলা লোকসংগীতের জনপ্রিয় শিল্পী কাঙালিনী সুফিয়া। গত মঙ্গলবার মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণজনিত কারণে তিনি হাসপাতালে ভর্তি হন। কিন্তু টাকার অভাবে এখন তিনি চিকিৎসা নিতে পারছেন না বলে জানিয়েছেন তাঁর মেয়ে পুষ্প বেগম।

এনটিভি অনলাইনকে পুষ্প বেগম বলেন, ‘টাকার অভাবে এখন মায়ের চিকিৎসা করতে পারছি না। আমার হাতে যে টাকা ছিল, সেটা প্রথম দিনে শেষ হয়ে গেছে। এখন মনে হচ্ছে, চিকিৎসা না করিয়ে বাসায় নিয়ে যেতে হবে। এখন পর্যন্ত কেউ এগিয়ে আসেনি সাহায্য করতে বা খবর নিতে। গত মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে মা অজ্ঞান হয়ে যান। তাড়াতাড়ি পাশের একটি হাসপাতালে নিয়ে যাই। মায়ের অবস্থা দেখে তাঁরা ঢাকায় নিয়ে যেতে বলেন। কিন্তু আমার কোনো পরিচিতজন ঢাকায় নেই। যে কারণে রাত ১২টার দিকে সাভারের একটি হাসপাতালে নিয়ে আসি। এখানে ডাক্তার পরীক্ষা করে জানান, তাঁর ব্রেইন স্ট্রোক হয়েছে। একদিন তাঁকে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) রাখার পর বুধবার কেবিনে পাঠিয়ে দেন।’

প্রধানমন্ত্রী সঞ্চয়পত্র দিয়েছিলেন জানিয়ে পুষ্প বলেন, ‘আমাদের প্রধানমন্ত্রী মাকে প্রতি মাসে ১০ হাজার টাকার সঞ্চয়পত্র দিয়েছেন। কিন্তু এই টাকা দিয়ে কোনোভাবে ভাত খেয়ে মাস পর হয়। মায়ের গলায় সমস্যা প্রায় দুই বছর ধরে। কোনো অনুষ্ঠানে গান গাইতে যেতে পারেন না। যে কারণে বাড়তি কোনো টাকা নেই। মনে হচ্ছে ধুঁকে ধুঁকে মরতে হবে কাঙালিনী সুফিয়াকে।’

সাভারের টিঅ্যান্ডটি কলোনিতে একটি টিনশেড ঘরে মেয়ে পুষ্প ও নাতনিকে নিয়ে থাকেন শিল্পী কাঙালিনী সুফিয়া। বার্ধক্য ও গলায় সমস্যার কারণে গান গাওয়ার জন্য কোনো অনুষ্ঠানে যেতে পারেন না। বাড়িতে বসেই কাটত দিন।

১৯৬১ সালে রাজবাড়ী জেলার বালিয়াকান্দির রামদিয়া গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন তিনি। ১৪ বছর বয়সে বিয়ে করেন তিনি। বিয়ের কয়েক বছরের মধ্যেই স্বামীর নির্যাতনে অতিষ্ঠ হয়ে একমাত্র মেয়ে পুষ্পকে কোলে নিয়ে ঘর ছাড়েন কাঙালিনী।

প্রথমে হাইকোর্ট আর শাহ আলীর মাজারই ছিল কাঙালিনীর ঘরবাড়ি। এখানে-ওখানে গান গাওয়ার ডাক এলে ছুটে যেতেন। ওই সময় একদিন শিল্পকলা একাডেমির একটি অনুষ্ঠানে গান গাইতে যান তিনি। সেখানে গিয়েই সুফিয়া হয়ে যান কাঙালিনী সুফিয়া। ঘুরে যায় তাঁর শিল্পী জীবন।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement