Beta

যৌন হেনস্তা

তনুশ্রীর ওপর হামলার সেই ভিডিও ভাইরাল

০১ অক্টোবর ২০১৮, ১২:৩৪

অনলাইন ডেস্ক
২০০৮ সালে তনুশ্রী দত্তর গাড়ির ওপর হামলার সেই ভিডিও অন্তর্জালে ভাইরাল। ছবি : সংগৃহীত

বর্ষীয়ান অভিনেতা নানা পাটেকারের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্তার অভিযোগের পর বলিউড অভিনেত্রী তনুশ্রী দত্ত সম্প্রতি প্রতিদিনই খবরের শিরোনাম হচ্ছেন। তাঁর অভিযোগ, ১০ বছর আগে ‘হর্ন ওকে প্লিজ’ ছবির শুটিং চলাকালে হেনস্তা করেন নানা, যদিও তনুশ্রীকে ‘নিজের মেয়ের মতো দেখেন’ বলেছেন নানা।

সাবেক এই ভারতসুন্দরী এ-ও বলেছেন, ওই সময় গুণ্ডারা তাঁর গাড়ির ওপর হামলা চালিয়েছিল। সেই দুঃসহ স্মৃতি এখনো তাঁকে তাড়া করে ফেরে। সেই হামলার ভিডিওটি এখন অন্তর্জালে ঝড় তুলেছে।

ভিডিও ফুটেজটিতে দেখা যায়, অসংখ্য মানুষের সামনেই তনুশ্রীর গাড়ির ওপর হামলা চালানো হয়েছে। কেউ কেউ তাঁর গাড়ির ওপর উঠে লাফাতে থাকে। গাড়ির কাচ ভেঙে দেয় তারা। ওপরের অংশ দুমড়েমুচড়েও দেয়, এমনকি টায়ারের হাওয়া ছেড়ে দেওয়া হয়।

বেশ কয়েকটি সাক্ষাৎকারে তনুশ্রী দত্ত সেই ভয়াবহ হামলার কথা বলেন। ২০০৮ সালে ওই হামলার পর কয়েকটি ছবিতে অভিনয়ের ডাক পান, কিন্তু তিনি আর ছবির সেটে ফেরেননি। তনুশ্রীর বাবা দ্রুত পুলিশকে খবর দেন। ভিড় থেকে কয়েকজনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ ও গাড়িটিকে যেতে সাহায্য করে।

সাংবাদিক জেনিস সেকাইরা তনুশ্রীকে সমর্থন দিয়ে বলেছিলেন, গুণ্ডারা তনুশ্রীর গাড়ির ওপর হামলা করে, দরজা ভেঙে ফেলার চেষ্টা করে। তিনি তৎক্ষণাৎ প্রযোজকদের এ ব্যাপারে জানিয়েছিলেন।

জেনিস বলেন, ‘তনুশ্রীর মা-বাবা তাঁকে সেখান থেকে নিয়ে যান। তাঁর গাড়ির ওপর হামলা হয়েছিল, জানালা ভেঙে ফেলা হয়েছিল। ওই ঘটনার সময় আমি তনুশ্রীর সঙ্গে যোগাযোগরত ছিলাম। মধ্যরাতে সে আমাকে তাঁর বাসায় যেতে বলেছিল। কেঁদে কেঁদে ঠিক কী হয়েছিল, তার বর্ণনা করছিল।’

অগ্রজ অভিনেত্রী শিল্পা শেঠি এক সাক্ষাৎকারে বলেছেন, ‘ঠিক কী হয়েছে, আমি জানি না। কিন্তু নারী হোক আর পুরুষ, যে-ই হোক; কাজের জায়গায় কেউ কোনো ধরনের সহিংসতা বা চাপের শিকার হতে পারে না। খুবই বেদনা অনুভব করছি, তাঁকে (তনুশ্রী) কী পরিমাণ মানসিক আঘাতের ভেতর দিয়ে যেতে হয়েছে।’

তনুশ্রী দত্ত-নানা পাটেকার বিতর্কে সরগরম বলিউডপাড়া। বেশ কয়েকজন তারকা তনুশ্রীর ‘লড়াইকে’ সমর্থন দিলেও নানা পাটেকারের সমর্থনে এগিয়ে এসেছেন কেউ কেউ। বেশিরভাগ তারকাই মন্তব্য করতে চাইছেন না। নানার সমর্থনে এগিয়ে আসেন ‘বিতর্ক রানি’ রাখি সায়ন্ত। কারণ, যে গানের দৃশ্যটির শুটিং নিয়ে এত হৈচৈ, সেই গানে তনুশ্রীর পরিবর্তে তখন যুক্ত হন রাখি সায়ন্ত।

রাখি তনুশ্রী দত্তর অভিযোগ উড়িয়ে দিয়ে তাঁকে ‘পাগল’ আখ্যা দিয়েছেন। বলেন, ওই সময় শুটিং সেটে তনুশ্রী মাদকাসক্ত হয়ে বেহুঁশ ছিলেন। রাখি চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়ে বলেন, তনুশ্রীর রক্ত পরীক্ষা করা হোক। তনুশ্রী যে মাদকাসক্ত, তা প্রমাণিত হবে। আর তা মিথ্যা প্রমাণিত হলে তিনি ভারত ছেড়ে চলে যেতে রাজি।

হলিউডে ‘মি টু’ আন্দোলন জোরদার হলেও বলিউড কার্যত নীরব ছিল এত দিন। তনুশ্রীর অভিযোগের পর বলিউডে ‘মি টু’ আন্দোলন জোরদার হচ্ছে। সূত্র : ইন্ডিয়া টিভি

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement