Beta

মেয়েরা, পুরুষসঙ্গীর যত্ন নাও...

০৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২০:১৫

অনলাইন ডেস্ক
কলকাতার জনপ্রিয় অভিনেত্রী স্বস্তিকা মুখার্জি। ছবি : সংগৃহীত

ভালোবাসার আবেদনে সাড়া দিয়েছে ভারতের সুপ্রিম কোর্ট। যৌনতায় ব্যক্তিস্বাধীনতাকে স্বীকার করে পুরোনো ধারণা বদলানোর কথাও বলেছে সর্বোচ্চ আদালত। জয় হয়েছে রংধনু পতাকার। সেই রায়কে স্বাগত জানিয়েছেন টালিউড-বলিউডের তারকারা। বাদ পড়েননি টালিগঞ্জের ‘ঊষ্ণ’ নায়িকা স্বস্তিকা মুখার্জিও।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারে স্বস্তিকা লেখেন, ‘মেয়েরা এটা ২০১৮। ঠিকমতো করে তোমার পুরুষসঙ্গীর যত্ন নাও। নইলে অন্য কোনো পুরুষ তার যত্ন নিতে শুরু করবে…।’

স্বস্তিকার এই টুইট নিয়ে দ্বিধাগ্রস্ত ভক্তরা। তিনি রায়ের পক্ষে না বিপক্ষে তা অস্পষ্ট। শুধু মেয়েদের উদ্দেশে কেন এ টুইট? অনেকে আবার হেসে উড়িয়ে দিয়েছেন। লিখেছেন— ‘লোল!’

একজন লিখেছেন, ‘সময় এসেছে, শুধু পুরুষ নয়, মেয়েদের জন্যও অভিনন্দন জানানো উচিত।’

তবে একজন বেশ মজা করে স্বস্তিকার টুইটের উত্তর দিয়েছেন। লিখেছেন, ‘যখন আমি শিশু ছিলাম, তখন সমকাম অপরাধ ছিল... যখন বেড়ে উঠছি, তখন সমকাম ছিল ট্যাবু... আর এখন সুপ্রিম কোর্ট এটাকে বৈধ করেছে... মরার আগে তাঁরা বাধ্যতামূলক করবে মনে হয়।’

ব্রিটিশ ঔপনিবেশিক আমলে জারি করা আইনের যে ধারাটির বলে ভারতে সমকামকে শাস্তিযোগ্য অপরাধ ছিল, গত বৃহস্পতিবার সেই ধারাটিকেই সংবিধান পরিপন্থী হিসেবে গণ্য করে বাতিল করে দিয়েছেন দেশটির সর্বোচ্চ আদালত।

প্রধান বিচারপতি দীপক মিশ্র সমকামের পক্ষে তাঁর রায়ে বলেন, ‘যৌনতাকে অপরাধ হিসেবে গণ্য করা অযৌক্তিক এবং সংবিধান পরিপন্থী।’

রায়ে দীপক মিশ্র আরো জানান, পুরোনো ধ্যান-ধারণা বদলের সময় এসেছে। সব নাগরিককে সমান অধিকার দিতে হবে।

টালিগঞ্জে রীতিবিরুদ্ধ অভিনয় আর খোলামেলা পোশাকের জন্য বিখ্যাত স্বস্তিকা মুখার্জি। টেলিভিশন ধারাবাহিক দেবদাসী অভিনয়ের মাধ্যমে কর্মজীবন শুরু করেন তিনি।

স্বস্তিকা ২০০৩ সালে ঊর্মি চক্রবর্তী পরিচালিত হেমন্তের পাখি ছবির মাধ্যমে বড় পর্দায় আত্মপ্রকাশ করেন। তাঁর ‘আমি আর আমার গার্লফ্রেন্ড’, ‘টেক ওয়ান’ ও ‘সাহেব বিবি গোলাম’ বেশ জনপ্রিয় হয়। এছাড়া ওয়েব সিরিজ ‘দুপুর ঠাকুরপো’ বেশ সাড়া ফেলে।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement