Beta

এই তারকাদের বাগদান হয়েছিল, বিয়ে হয়নি

২০ আগস্ট ২০১৮, ২১:৩১ | আপডেট: ২০ আগস্ট ২০১৮, ২১:৪৪

অনলাইন ডেস্ক

বলিউডের তারকাদের মধ্যে অনেকেরই প্রেমের গুঞ্জন শোনা যায়। তারকাদের প্রেমকাহিনী নিয়ে মুখরোচক গল্পও শোনা যায় হররোজ। তারকাদের ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে ভক্তদের আগ্রহেরও কমতি নেই। তাই গণমাধ্যমগুলো ফলাও করে প্রচার করে তাদের গল্প। সেই প্রেম ভেঙেও যায়। মনভাঙা গল্পও আসে খবরে। কিন্তু একেবারে পাকাপাকি সম্পর্কের দৌড়গোড়ায় গিয়েও ফিরে আসতে হয়েছে অনেককে। বাগদান বা আংটি বদলের পরও অনেক তারকা সংসার পর্যন্ত পৌঁছাতে পারেননি। এবার সেসব তারকার গল্প শোনা যাক।

সালমান খান-সংগীতা বিজলানি

বহু বছর ধরেই বলিউড সুপারস্টার সালমানের খানের সঙ্গে বহু তারকার প্রেমের কথা শোনা যায়। ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চন, ক্যাটরিনা কাইফ, ইউলিয়া ভানটুরসহ বহু অভিনেত্রীর নামের পাশে সালমান খান বসেছেন খবরের শিরোনামে। কিন্তু ১৯৯৪ সালে তখনকার জনপ্রিয় অভিনেত্রী সংগীতা বিজলানির সঙ্গে সালমান খানের প্রেম ছিল। বিয়ের কার্ড ছাপাও হয়ে গিয়েছিল। পরে তা আর হয়নি। যাহোক, এখনও সালমান খান ব্যাচেলরই আছেন!

কারিশমা কাপুর-অভিষেক বচ্চন

২০০২ সালে বলিউড তারকা অভিষেক বচ্চনের জন্মদিনে জনপ্রিয় অভিনেত্রী কারিশমা কাপুরের বাগদান হয়। কিন্তু পরের বছরই তাঁরা আলাদা হবেন বলে সিদ্ধান্ত নেন। অভিষেক বিয়ে করেন সাবেক বিশ্বসুন্দরী ঐশ্বরিয়া রাইকে। আর কারিশমা কাপুর বিয়ে করেন ব্যবসায়ী সঞ্জয় কাপুরকে। ঐশ্বরিয়ার সঙ্গে এখনও সংসার করছেন অভিষেক। এ দম্পতির ছয় বছরের কন্যাসন্তানও আছে। তবে ২০১৬ সালের জুনে সঞ্জয় কাপুরের সঙ্গে কারিশমার বিবাহ বিচ্ছেদ হয়।

অক্ষয় কুমার-রাভিনা ট্যান্ডন

এক সাক্ষাৎকারে রাভিনা বলেছিলেন, অক্ষয়ের সঙ্গে গোপনে তিনি বাগদান সেরেছিলেন। জনপ্রিয়তা হ্রাস পাওয়ার ভয়ে অক্ষয় তাঁকে এ খবর জনসমক্ষে না বলতে অনুরোধ করেছিলেন। এ কারণে বাগদানের খবর গোপন করেছিলেন রাভিনা। যাহোক সেই ১৯৯৬ সালের পর থেকে তাদের সম্পর্ক আর জোড়া লাগেনি!

মল্লিকা শেরওয়াত-বিজয় সিং

বলিউডের যৌন আবেদনময়ী অভিনেত্রী মল্লিকা শেরওয়াতের সঙ্গে এক টিভি শোতে পরিচয় হয় বিজয় সিংয়ের। ‘দ্য ব্যাচেলরেট ইন্ডিয়া : মেরে খায়ালুন কি মল্লিকা’ শোতে বিজয় সিংকে সঙ্গী হিসেবে পেতে চান বলেও ঘোষণা দেন মল্লিকা। এরপর তাদের বাগদান হয়। কিন্তু এক বছর যেতে না যেতেই তাঁরা সম্পর্কের ইতি টানেন।

বিবেক ওবেরয়-গুরপ্রিত গিল

২০০০ সালে বলিউড ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে ঢোকার আগেই বিবেক ওবেরয়ের সঙ্গে গুরপ্রিত গিলের বাগদান হয়। কিন্তু সে সম্পর্ক টেকে না বেশিদিন। বিবেক ওবেরয় বিশ্বসুন্দরী ঐশ্বরিয়া রাইয়ের প্রেমে পড়েন। তাদের প্রেমকাহিনী নিয়ে সে সময় বলিউডপাড়া সরগরম ছিল। এ সম্পর্কও টেকে না বেশি দিন। ঐশ্বরিয়া বিয়ে করেন অভিষেক বচ্চনকে। ২০১৫ সালে বিবেক বিয়ে করেন প্রিয়াঙ্কা আলভাকে।

সাজিদ খান-গওহর খান

চিত্রনির্মাতা সাজিদ খান এবং সাবেক বিগ বস প্রতিযোগী ও অভিনেত্রী গওহর খানের বাগদান হয় ২০০৩ সালে। যাহোক, তাঁরা কখনোই ব্যক্তিগত বিষয় নিয়ে জনসমক্ষে কথা বলেননি। কেন তাদের বাগদানের পরও সম্পর্ক ভেঙে গেল, তা আর জানা যায়নি।

রাখি সায়ন্ত-ইলেশ পারুজানওয়ালা

২০০৯ সালে রাখি সায়ন্ত ও ইলেশের সম্পর্ক শুরু হয় এক টিভি শো থেকে। ওই শোটির নাম ছিল ‘রাখি কা স্বয়ম্ভর’, যেখানে রাখি তাঁকে নির্বাচন করেন। ১৬ জন ব্যাচেলর অংশগ্রহণ করেন ওই শোতে। যা হোক, এ যুগলের বিচ্ছেদ হয়।

করণ সিং গ্রোভার-বরখা বিশত

জেনিফার উইঙ্গেটের সঙ্গে বিবাহ বিচ্ছেদের পর করণের সঙ্গে শ্রদ্ধা নিগমের প্রেমের খবর ছড়িয়ে পড়ে। গণমাধ্যমগুলো তাদের প্রেমের গল্প শোনায়। কিন্তু খুব কম মানুষই জানে যে, বিপাশা বসুর বর্তমান স্বামী করণ গ্রোভারের সঙ্গে প্রেম ছিল বরখা বিশতের। যাহোক, এ সম্পর্ক টেকেনি। পরে বিশত ইন্দ্রনীল সেনগুপ্তকে বিয়ে করেন।

নীল নিতিন মুকেশ-প্রিয়াঙ্কা ভাটিয়া

গণমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, গার্লফ্রেন্ড প্রিয়াঙ্কা ভাটিয়ার সঙ্গে নিতিনের বাগদান হয়, যখন প্রিয়াঙ্কার বলিউডে অভিষেকই হয়নি। ক্যারিয়ারের উজ্জ্বল সময়ে নীল প্রিয়াঙ্কার সঙ্গে সম্পর্ক চুকিয়ে দেন। রুকমিনি সাহাইকে পরে বিয়ে করেন নীল।

শিল্পা সিন্ধি-রমিত রাজ

‘মায়কা’ ও ‘মাত পিতাত কে চারণো মে সোয়ার্গ’ সিরিয়ালে এ যুগল একসঙ্গে কাজ করেন। ২০০৯ সালে তাঁরা প্রেমে পড়েন এবং বন্ধনে যুক্ত হওয়ার সিদ্ধান্ত নেন। ‘বিগ বস-১১’ জয়ী শিল্পা রমিত রাজকে বিয়ে করবেন বলে পাকা কথাও দেন। বাগদানের পর বিয়ের কার্ডও ছাপা হয়ে যায়। কিন্তু পরে শিল্পা রমিতকে বিয়ে করবেন না জানিয়ে দেন।

রতন রাজপুত-অভিনব

রাখি সায়ন্তের মতো রতন রাজপুতও ‘স্বয়ম্ভর’ সভায় সিদ্ধান্ত নেন অভিনবকে বিয়ে করবেন। যা হোক, ওই শো শেষ হওয়ার পরই তাঁরা সম্পর্ক চুকিয়ে দেন। রতন বলেছিলেন, তিনি অভিনবকে বিয়ে করতে পারবেন না, কারণ জ্যোতিষশাস্ত্রে তাদের বন্ধন মিলছে না!

উপেন প্যাটেল-কারিশমা তন্না

‘বিগ বস’ চলাকালে এ যুগল প্রেমে পড়েন। ‘নাচ বালিয়ে’ শোতে উপেন কারিশমাকে প্রেমের প্রস্তাব দেন। যাহোক, পরে তাঁরা ব্যক্তিগত কারণ দেখিয়ে সম্পর্ক ছিন্ন করেন।

সিকান্দর খের-প্রিয়া সিং

জনপ্রিয় অভিনেতা অনুপম খের ও কিরণ খেরের সন্তান সিকান্দর খের। আর কবিতা সিংয়ের মেয়ে প্রিয়া সিং। কবিতা সিং অনিল কাপুরের স্ত্রী সুনীতা কাপুরের বোন। ২০১৬ সালে সিকান্দর-প্রিয়ার বাগদান হয়। কয়েক মাস যাওয়ার পরই তাঁরা সিদ্ধান্ত নেন বিয়ে করবেন না।

অখিল আক্কিনেনি-শ্রীয়া ভুপাল

নাগার্জুনের ছোট ছেলে অখিলের সঙ্গে শ্রীয়ার বাগদান হয়। শ্রীয়া ভারতের নামকরা শিল্পপতি জে ভি কে রেড্ডির নাতনি। বিশাল আয়োজন করে তাদের বাগদান হয়। কিন্তু পরে তাঁরা আর বিয়ে করেননি। সূত্র মিড ডে

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement