Beta

বলিউডে ভালো শিল্পীরা সুযোগ পাচ্ছেন না : কৈলাশ খের

১৯ আগস্ট ২০১৮, ২১:০৪

অনলাইন ডেস্ক

ভারতের জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী কৈলাশ খের। শিগগিরই তাঁকে একটি মিউজিক্যাল ওয়েব সিরিজে দেখা যাবে। র‍্যাপ সংগীতশিল্পী বাদশার চিন্তা-চিন্তনে ওয়েব সিরিজ লকডাউন নির্মাণ করা হয়েছে। বলিউডের সাম্প্রতিক গান নিয়ে কিছুটা নাখোশ তিনি। বলেছেন, ভালো শিল্পীদের সুযোগ না পাওয়ার কথাও।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে দেওয়া বিশেষ সাক্ষাৎকারে কৈলাশ বলেন, ‘বলিউডে এখন অনেক কিছুই বদলে গেছে। বলিউড সংগীত হারাতে বসেছে। এটা ব্যবসাক্ষেত্রে পরিণত হয়েছে। কারণ হিসেবে তিনি বলেন, সংগীতশিল্পীদের এখন কিছুই করার থাকে না।’

একসময় বলিউড দাপিয়ে বেড়াতেন কৈলাশ খের। এখন দক্ষিণে ঝুঁকেছেন তিনি। সেখানে তাঁর ভক্তসংখ্যাও বেড়েছে অনেকগুণ। বলিউডের হালচালই বদলে গেছে বলে মনে করেন তিনি। বলেন, ‘বলিউড বদলে যাওয়ার কারণ হলো, সেখানে সংগীতশিল্পীদের কিছু করার নেই। এটা এমন নয় যে আমি সেখানে অনুপস্থিত। আসলে ভালো শিল্পীরা কোনোভাবেই বলিউডে সুযোগ পাচ্ছেন না। মিউজিককে সেখানে বাণিজ্যিকীকরণ করা হয়েছে। এটা আমি সমর্থন করি না। আমি মনে করি, বলিউড মিউজিকের জন্যই বিখ্যাত। কিন্তু এখন...।’

গানের পুনর্সৃজন সম্পর্কে কৈলাশ খের বলেন, ‘শিল্পকে বিচার করা যায় না। এটা প্রাকৃতিক প্রক্রিয়া। শ্রোতা হিসেবে আদি গান ও নতুন ভার্সন দুটোর তুলনা করেই আমার মতো করে গ্রহণ করি। গান বা শিল্প আমাদের পছন্দ ও রুচির ওপর নির্ভর করে। রুচি বদলে যাচ্ছে।’

বর্তমান ইউটিউব সেনসেশন রাজাকুমারীর সঙ্গে গেয়েছেন কৈলাশ। প্রথম যোগাযোগের সূত্র কী। জনপ্রিয় এ শিল্পী বলেন, ‘দেখা হওয়ার আগে তাঁর সম্পর্কে কিছুই জানতাম না। যখন দেখা হলো, তখনই জানলাম যে সে ইউটিউব সেনসেশন। আমি তাঁর ব্যাপারে কৌতূহলী ছিলাম। যখন ইউটিউবে তাঁর গান শুনলাম, বুঝলাম কীভাবে বিশ্বসংগীত নতুনত্ব গ্রহণ করছে। তাঁর সাথে খুব মজা করেছিলাম।’

আপনি কি র‍্যাপিং চেষ্টা করছেন? বাদশার কাছ থেকে শিখছেন? এমন প্রশ্নে হেসে ওঠেন কৈলাশ। বলেন, ‘কেন নয়? র‍্যাপ বোঝা খুব কঠিন ছিল আমার কাছে, কারণ এর গতি।  কিন্তু র‍্যাপ আমাদের সংস্কৃতিতে নতুন নয়। ভারতের ইতিহাসে, র‍্যাপ কথাগান হিসেবে পরিচিত ছিল। মানুষ ছন্দের তালে গল্প বর্ণনা করত। পশ্চিমাকরণের পর এটা দর্শকের কাছে শীতল হয়ে গেছে।’

বলা হয়, ভালো গানের জন্য সময় ও ধৈর্য প্রয়োজন। ২৪ ঘণ্টায় কীভাবে গান হতে পারে? কৈলাশের সাফ জবাব, ‘এই মানুষগুলো মনে হয় মজা করে। ২৪ ঘণ্টায় দুটো গান, এসব মজা করে বলে।’

ইউটিউব বা অন্যান্য মাধ্যমে স্বতন্ত্র মিউজিক তৈরি হচ্ছে। আপনি কী লক্ষ করেন? কৈলাশ বলেন, ‘এই পরিবর্তনে আমি খুশি। আমি মনে করি, হারানো অনেক কিছুই নতুন করে তারা যোগ করতে পারবে। এই নতুন শুরু মিউজিক ও মিউজিশিয়ানের জন্য ভালো লক্ষণ।’

ওয়েবসিরিজ লকডাউন সম্পর্কেও বলেন জনপ্রিয় এ তারকাশিল্পী। বলেন, এতে একেবারেই নতুন কিছু দেখা যাবে, এর আগে দর্শক-শ্রোতা যার সঙ্গে পরিচিত হননি।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement