ইনাম আহমেদকে উপদেষ্টা করায় আ. লীগের সমালোচনা

০৯ জুলাই ২০১৯, ২২:৪১

ইনাম আহমেদ চৌধুরীকে আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা মণ্ডলীর সদস্য করায় আওয়ামী লীগের সমালোচনা করেছে মু্ক্তিযোদ্ধার সন্তান ও প্রজন্মদের নিয়ে গঠিত মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ। তারা বলে, ‘আওয়ামী লীগ নিজেদের রাজনৈতিক আদর্শ ও চেতনার সমস্ত শক্তির মৃত্যু ঘটিয়ে এখন স্বাধীনতাবিরোধী জামাত-বিএনপি-হেফাজতের দেহে পরজীবী হয়ে বেঁচে থাকতে চায়। ইনাম আহমেদ চৌধুরীর আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা মণ্ডলীর সদস্য হিসেবে মনোনয়ন পাওয়ায় সে আশঙ্কাই সত্যি হলো।’

আজ মঙ্গলবার দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংবাদিক সমিতির কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে মঞ্চের নেতারা এসব কথা বলেন।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পেশ করেন মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের আহ্বায়ক ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক আ ক ম জামাল উদ্দিন। এ সময় মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের ঢাবি শাখার সভাপতি আমিনুল ইসলাম বুলবুল, সাধারণ সম্পাদক আল মামুন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

অধ্যাপক আ ক ম জামাল উদ্দিন বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দুঃসময়ের ত্যাগী, দীর্ঘ পরীক্ষিত নেতাদের প্রত্যাখ্যান করে কীভাবে সদ্য দলে যোগ দেওয়া ইনাম আহমেদ চৌধুরীকে উপদেষ্টা করেছেন, তা আমাদের বিস্মিত করেছে।’ তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী চীন সফর শেষে দেশে ফিরে চীনপন্থী একজন সাবেক কূটনীতিককে আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা মণ্ডলীর সদস্য করেছেন। এটা যদি চীনের সঙ্গে অর্থনৈতিক ও রাজনৈতিক সম্পর্ক আরো জোরদারের জন্য হয়, তবে নিশ্চয়ই তা প্রশংসা ও আশাবাদের ব্যাপার। সেক্ষেত্রে অবশ্যই ইনাম চৌধুরীর মতো বিতর্কিত ব্যক্তির নিয়োগ পরিত্যাজ্য হওয়া উচিত ছিল। কিন্তু তা যদি হয় প্রতিবেশী বন্ধু দেশের সঙ্গে ক্রমবর্ধমান অবনতিশীল সম্পর্কের বিকল্প ব্যবস্থা, তাহলে সেটা আমাদের রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে সুদূরপ্রসারী এক মহাভ্রান্তি হিসেবে পরিগণিত হবে।’

অধ্যাপক আ ক ম জামাল উদ্দিন আরো বলেন, ‘সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অনুপ্রবেশকারীদের বিপক্ষে একাধিক বক্তব্য দিয়ে দলের দুঃসময়ের নেতাকর্মীদের মনে আশার ভেলা তৈরি করতে সমর্থ হয়েছিলেন। কিন্তু আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের সাম্প্রতিক স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধ চেতনাবিরোধী বক্তব্য ও ইনাম আহমেদ চৌধুরীর উপদেষ্টা হিসেবে নিয়োগ প্রধানমন্ত্রীর কথা ও কাজের মধ্যে স্পষ্ট বৈপরীত্য তৈরি করেছে।’

গত ৭ জুলাই বিএনপির সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান ও বিএনপি চেয়ারপারসনের সাবেক উপদেষ্টা ইনাম আহমেদ চৌধুরীকে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য করা হয়।