রাবিতে তরিকুলের ওপর হামলার বিচার দাবিতে মানববন্ধন

Looks like you've blocked notifications!
রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে কোটা সংস্কার আন্দোলনকারী শিক্ষার্থী তরিকুল ইসলাম তরিকের ওপর হামলাকারীদের বিচার দাবিতে মোমবাতি জ্বালিয়ে মানববন্ধন করা হয়। ছবি : এনটিভি

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) কোটা সংস্কার আন্দোলনকারী শিক্ষার্থী তরিকুল ইসলাম তরিককে মারধরকারী ছাত্রলীগ নেতা-কর্মীদের বিচার চেয়েছেন আন্দোলনকারীরা।

আজ মঙ্গলবার বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের বিশ্ববিদ্যালয় শাখার যুগ্ম আহ্বায়ক তরিকুলকে মারধরের এক বছর পূর্ণ হয়। এ উপলক্ষে সন্ধ্যায় পরিষদের পক্ষ থেকে তরিকুলকে মারধরের স্থানে মোমবাতি প্রজ্বালন করা হয়।

পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক মুরশিদুল আলম বলেন, এক বছর আগে তরিকুলকে নির্মমভাবে মেরে ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা তাঁর পা ভেঙে দেয়। সে সময় বিভিন্ন গণমাধ্যমে মারধরকারীদের নাম-ছবি প্রকাশিত হয়েছিল। কিন্তু এমন ঘটনার বিচারে কেউ কোনো পদক্ষেপ নেয়নি। তাঁকে মারধরকারীদের বিচার চাই।’

কর্মসূচিতে পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক আব্দুর রাজ্জাক, মাজহারুল ইসলামসহ সংগঠনের অর্ধশত নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

গত বছরের ২ জুলাই বিকেলে কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীরা রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনে রাজশাহী-ঢাকা মহাসড়কে পতাকা মিছিল বের করলে ছাত্রলীগ হামলা চালায়। এতে ১৫ জন শিক্ষার্থী আহত হয়। এদের মধ্যে তরিকুলকে ধাওয়া দিয়ে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা রামদা, হাতুড়ি, লোহার পাইপ ও লাঠি দিয়ে উপর্যুপরি আঘাত করে। আঘাতে তরিকুলের ডান পায়ের হাড় ভেঙে যায়। এছাড়া হাতুড়ির আঘাতে মেরুদণ্ড ক্ষতিগ্রস্ত হয় এবং লাঠির আঘাতে মাথায় গুরুতর জখম হয়।