Beta

ছাত্রদল নেতাকে পুলিশে দিল ঢাবি প্রক্টর

২৬ ডিসেম্বর ২০১৮, ১২:০৫

বিশ্ববিদ্যালয় সংবাদদাতা

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) এক ছাত্রদল নেতাকে মারধর করে প্রক্টর টিমের হাতে দিয়েছে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। পরে ওই ছাত্রদল নেতাকে প্রক্টরের নির্দেশে পুলিশে দেওয়া হয়।

মঙ্গলবার সন্ধ্যার দিকে এ ঘটনা ঘটে। ঢাবি প্রক্টর অধ্যাপক ড. এ কে এম গোলাম রাব্বানী এনটিভি অনলাইনকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

ওই ছাত্রদল নেতার নাম মো. আলিমুজ্জামান। তিনি অর্থনীতি বিভাগের ছাত্র। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ সার্জেন্ট জহুরুল হক হলের যুগ্ম আহ্বায়ক।

হল শাখা ছাত্রলীগ নেতারা জানান, আলিমুজ্জামান হলে এসে ছাত্রদের সঙ্গে নির্বাচন নিয়ে আলাপ-আলোচনা করতেন। তাঁর কথার মধ্যে বিভিন্ন ‘ষড়যন্ত্রের’ কথা আসত। এ জন্য তাঁকে ধরে প্রক্টর টিমের কাছে দেওয়া হয়েছে।

হল শাখা ছাত্রলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক আমির হামজা এনটিভি অনলাইনকে বলেন, ‘এই ছাত্রদল নেতা হলে এসে অন্যদের সঙ্গে নির্বাচন নিয়ে ষড়যন্ত্রের পরিকল্পনা করতেন। আমরা খবর পেয়ে তাঁকে ধরে প্রক্টর টিমের কাছে দিই।’

ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সাহিত্য ও প্রকাশনা সম্পাদক মিনহাজুল ইসলাম ভূইয়া এনটিভি অনলাইনকে বলেন, ‘তিনি পদ পাওয়ার পরে হলের রিডিংরুমে পড়াশোনা করতেন। কোনো কর্মসূচিতে আসতেন না। তিনি ছাত্রদলের নিষ্ক্রিয় নেতা। তাঁকে মারধর করে পুলিশে দেওয়ায় আমরা এ ঘটনার নিন্দা জানাই।’

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. এ কে এম গোলাম রাব্বানী বলেন, আলিমুজ্জামানের বিরুদ্ধে নির্বাচন নিয়ে ষড়যন্ত্র করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ জন্য জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশে দেওয়া হয়েছে। সে যদি নিরীহ হয়, তবে তাকে ছেড়ে দেওয়া হবে।

শাহবাগ থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মুফিজুর রহমান এনটিভি অনলাইনকে বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, গতকাল সন্ধ্যাবেলার দিকে তাঁকে থানায় আনা হয়। জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

Advertisement