Beta

সেই ফটোগ্রাফারকে মারধর

২৪ জুলাই ২০১৮, ২০:৫২

বিশ্ববিদ্যালয় সংবাদদাতা

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি এলাকায় একটি যুগলের চুমু খাওয়ার ছবি তুলে আলোচনায় আসা সেই ফটোগ্রাফারকে মারধর করার অভিযোগ উঠেছে। আজ মঙ্গলবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) টিএসসি এলাকাতেই এ ঘটনা ঘটে।

ওই ফটোগ্রাফারের নাম জীবন আহমেদ। তিনি একটি অনলাইন সংবাদমাধ্যমে কাজ করেন। যার নাম পূর্বপশ্চিম বিডি ডটকম। মারধরকারীরা সবাই বিভিন্ন গণমাধ্যমের ফটোগ্রাফার হিসেবে কাজ করে বলে জানা যায়।

চুমু খাওয়া যুগলের ছবি গতকাল সোমবার সামাজিক মাধ্যমে প্রকাশ করেন জীবন আহমেদ। গতকাল দিনভর ছবিটি নিয়ে ব্যাপক আলোচনা হয়।

মারধরের বিষয়ে জানতে চাইলে জীবন আহমেদ কিছু বলতে চাননি। তিনি তাঁর সম্পাদকের সঙ্গে কথা বলতে বলেন। এ বিষয়ে পূর্বপশ্চিম বিডি ডটকম অনলাইনের সহকারী বার্তা সম্পাদক প্রান্ত রায় এনটিভি অনলাইনকে বলেন, ‘মঙ্গলবার দুপুরে টিএসসির পার্শ্ববর্তী বটতলায় একই পেশার কয়েকজনের সঙ্গে দেখা হলে ছবিটি কেন তাদের শেয়ার করা হলো না, এই নিয়ে জীবনের কথা কাটাকাটি হয়। তাঁর কাছে ওই ফটোগ্রাফাররা আলোচিত ছবিটির সঙ্গে তোলা অন্যসব ছবি এবং তরুণ-তরুণীর ক্লোজআপ ছবিও দাবি করে। অফিসের নিষেধ থাকায় জীবন ছবিগুলো দিতে অস্বীকার করায় তাঁর ওপর হামলা চালানো হয়। তাঁকে মারধর করে ক্যামেরা ছিনিয়ে নিয়ে ভেঙে ফেলা হয়।’

জীবনের ওপর হামলার ঘটনায় শাহবাগ থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে জানান প্রান্ত রায়। এদিকে সহকর্মীরা (সাংবাদিক) মারধরের পর জীবনের ফেসবুক ‘আইডি’ থেকে সাংবাদিকতা ছেড়ে দেওয়ার একটি ‘স্ট্যাটাস’ দেওয়া হয়। তাতে লেখা ছিল, ‘আজ থেকে সাংবাদিকতা থেকে বিদায় নিলাম।’ যদিও ওই ‘স্ট্যাটাসটি’ তিনি দেননি বলে জানান। ওই লেখাটি দেওয়ার দুই ঘণ্টা পর একটি ‘স্ট্যাটাস’ দিয়ে নিজের ফেসবুক ‘আইডি হ্যাকড’ হয়ে যায় বলে জানান জীবন। সেখানে তিনি লেখেন, 'আমার ফেসবুক আইডি হ্যাক হবার ২ ঘণ্টা পর ফেরত পেলাম। নিচের এই স্ট্যাটাস আমার দেয়া না। কেউ বিভ্রান্ত হবেন না। আমার আইডি থেকে বেশ কিছু পোস্টও গায়েব দেখছি। ধন্যবাদ আমার আইটি স্পেশালিষ্ট বন্ধুকে আইডি ফেরত পেতে সহযোগিতা করবার জন্য।'

এ বিষয়ে জানতে চাইলে জীবন বলেন, ‘দুপুর দুইটা আড়াইটার দিকে আমার আইডি হ্যাকড হয়। দুই ঘণ্টা পরে সেটি উদ্ধার করা হয়।’ ‘হ্যাকড’ হওয়ার পরে তাঁর কয়েকটি ‘স্ট্যাটাস’ মুছে ফেলা হয় বলেও জানান তিনি।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement