Beta

‘আমরাই আমাদের আঘাত করি, এভাবে কি ভ্রাতৃত্ব গড়ি!’

১০ জুলাই ২০১৮, ২০:৫৬

বিশ্ববিদ্যালয় সংবাদদাতা
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের স্নাতকোত্তর শ্রেণির শিক্ষার্থী মাসুদ রানার ওপর হামলার প্রতিবাদে আজ মঙ্গলবার মানববন্ধন করেন বিভাগের শিক্ষার্থীরা। ছবি : এনটিভি

কোটা সংস্কার আন্দোলন করার সময় গত ২ জুলাই ছাত্রলীগের হামলার শিকার হন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের স্নাতকোত্তর শ্রেণির শিক্ষার্থী মাসুদ রানা।

এই হামলার প্রতিবাদে আজ মঙ্গলবার বেলা ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের অপরাজেয় বাংলার পাদদেশে তাঁর বিভাগের শিক্ষার্থীরা মানববন্ধন করেন।

পরবর্তী সময়ে কোনো শিক্ষার্থীকে নিজেদের ক্যাম্পাসে যেন নৃশংস হামলার শিকার না হতে হয় মানববন্ধন থেকে শিক্ষার্থীরা সেই দাবি জানান।

হামলাকারীদের বিচার দাবি করে অনির্দিষ্টকালের জন্য ক্লাস- পরীক্ষা বর্জনেরও ঘোষণা দেন এই শিক্ষার্থীরা।

এ সময় তাঁদের হাতে বিভিন্ন ধরনের প্ল্যাকার্ড দেখা যায়। প্ল্যাকার্ডের লেখায় ক্যাম্পাসে তাঁদের অনিরাপত্তাবোধ, প্রশাসনের ভূমিকায় তাঁদের ক্ষোভ, এমনকি শিক্ষার্থীদের ওপর শিক্ষার্থীদের হামলায় তাঁদের বিস্ময় ফুটে ওঠে।

প্ল্যাকার্ডগুলোতে লেখা ছিল, ‘আমরাই আমাদের আঘাত করি, এভাবে কি ভ্রাতৃত্ব গড়ি!’, ‘ঢাবিয়ান হয়ে ঢাবিয়ান মারো, হৃদয়ে পীড়া তৈরি করো’, ‘চোখ খোল প্রশাসন, রক্ষা কর দেশের ধন’, ‘আমরা মানুষ, পশু নই, মানবধর্মের দীক্ষা কই?’, ‘শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার বিচার চাই।’

মানববন্ধনে অংশ নেওয়া বাংলা বিভাগের তৃতীয় বর্ষের দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী শিক্ষার্থী আমজাদ হোসেন বলেন, ‘ক্যাম্পাসে শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা দুঃখজনক। শিক্ষার্থীরা একটি যৌক্তিক দাবি নিয়ে আন্দোলন করছে, এ আন্দোলনের সাথে একাত্মতা প্রকাশ করে দ্রুত এর সমাধান দাবি করছি।’

আরেক শিক্ষার্থী ফারজানা খেয়া বলেন, ‘শহীদ মিনারের মতো জায়গায় একজন শিক্ষার্থীকে কুকুরের মতো মারা হয়েছে। শিক্ষার্থীদের ওপর এমন হামলা মেনে নেওয়া যায় না। এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাতেই আজ আমরা এখানে দাঁড়িয়েছি।’

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement