বিমা শিল্পটাই ফাঁকিবাজিতে অত্যন্ত দক্ষ : অর্থমন্ত্রী

০২ এপ্রিল ২০১৫, ১৮:৪৮ | আপডেট: ০২ এপ্রিল ২০১৫, ১৮:৫৯

নিজস্ব প্রতিবেদক
অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। ছবি : এনটিভি

দেশের বিমা খাত অনিয়ম-ফাঁকিবাজিতে অত্যন্ত দক্ষ বলে মন্তব্য করেছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। তিনি বলেন, এর পরিবর্তন প্রয়োজন। এ ক্ষেত্রে বীমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রক কর্তৃপক্ষকে (আইডিআরএ) আরো সক্রিয় হওয়ার তাগিদ দেন তিনি।  

আজ সকালে রাজধানীর মতিঝিলের সাধারণ বীমা ভবনে আইডিআরএর নতুন কার্যালয়ের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন মুহিত। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন তিনি। 

বিশেষ অতিথি ছিলেন অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান ও অর্থ মন্ত্রণালয়ের ব্যাংক ও আর্থিক বিভাগের সচিব আসলাম আলম। সভাপতিত্ব করেন আইডিআরএর অ্যাকচ্যুয়ারি এম শেফাক আহমেদ। এ ছাড়া বিমা খাতের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের প্রধানরা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। 

অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘বিমা আইনটি আমরা ২০১০ সালে প্রণয়ন করি। একটা আধুনিক আইন হয়েছে। আমরা এর সঙ্গে যোগ করেছি আইডিআরএ।’  

বিমা খাতের অনিয়মের কথা স্মরণ করিয়ে অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘আমি মাঝে মাঝে বলি। অত্যন্ত দুঃখের সঙ্গে বলি, আমাদের বিমাশিল্পটাই অনিয়ম ও ফাঁকিবাজিতে অত্যন্ত দক্ষ। এটা একটা দক্ষতা, সুতরাং তার ভবিষ্যৎ ভালো আছে। যেন দক্ষতাকে উল্টানো যায়। এই দক্ষতাকে অন্যভাবেও পরিবর্তন করা যায়। এই ফাঁকিবাজির পরিবর্তে নিয়মতান্ত্রিক পদ্ধতিতে চলা, সেই পরিবর্তনটা করা যায়। সেই পরিবর্তনটা করার উদ্দেশ্যেই আইডিআরএর জন্ম। আইডিআরএ এখন আপনাদের সামনে বর্তমান।’ 

মুহিত বলেন, ‘আমি মনে করি, আমাদের আর্থিক খাতে অসুবিধা অনেক কিছু হয়েছে। কিন্তু দুটি ক্ষেত্রে (স্টক এক্সচেঞ্জ কমিশন ও আইডিআরএ) আমরা ব্যাপকভাবে সংস্কার করেছি। অত্যন্ত সফল সংস্কার করেছি। অনেক কিছু হয়েছে স্টক বাজারে। কিন্তু ... আমরা যেমন আইডিআরএকে প্রতিষ্ঠাকে প্রতিষ্ঠা করলাম, ঠিক তেমনিভাবে সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন প্রতিষ্ঠা করেছি। ... প্রতিষ্ঠার পর থেকে ২০০৯ সাল পর্যন্ত এটা উল্লেখযোগ্য এখানে (স্টক মার্কেটে) কোনো নিয়ন্ত্রণ ছিল না। আগে স্টক মার্কেট কোনো স্টক মার্কেট ছিলই, এখন একটা স্টক মার্কেট হয়েছে। এখানে ওঠানামা হবেই। পৃথিবীর সবখানে হয়। এখানেও হবে। তবে এখন এটা নিয়ম-কানুনের মাধ্যমে চলছে।
আইডিআরএকেও নিয়মের মধ্যে চলতে হবে।’ 

প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান বলেন, ‘বিমা খাতের ওপর আমাদের আস্থার ভাঙন ধরেনি। এটা একটা চমৎকার বিষয়। যদিও হলমার্কের বিষয়টা চমৎকার ছিল না। আমরা আশা করব, এই ধরনের বিষয় যেন আগামীতে না হয়।’