Beta

পানে আগুন, খেলে সারে গলা ব্যথা!

১৬ জানুয়ারি ২০১৬, ১০:২২ | আপডেট: ১৬ জানুয়ারি ২০১৬, ১০:৩৫

অর্থনীতি ডেস্ক
এক ক্রেতার মুখে ‘আগুন পান’ তুলে দিচ্ছেন ভারতের গুজরাটের রাজকোটের ব্যবসায়ী চুন্নি লাল । ছবি : সংগৃহীত

পান খাওয়ার অভ্যাস রয়েছে অনেকেরই। সাধারণত পানের সঙ্গে থাকে চুন ও সুপারি। এর সঙ্গে বিভিন্ন ধরনের জর্দাও খেয়ে থাকেন অনেকে।

তবে ভারতের এক ব্যবসায়ী উদ্ভাবন করেছেন এক অনন্য ধরনের পান। সেই পান বানিয়ে তাতে আগুন ধরিয়ে গ্রাহকের মুখে তুলে দেন তিনি।

ডেইলি মেইল অনলাইনের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে। এতে বলা হয়, ভারতের গুজরাট রাজ্যের রাজকোট নগরের পান বিক্রেতা চুন্নি লাল। ৩০ বছর ধরে পান বিক্রি করেন ৪৮ বছর বয়সী এই ব্যবসায়ী। তাঁর উদ্ভাবিত ‘আগুন পান’ দেশটির বিভিন্ন নগর ও শহরে বিক্রি হচ্ছে। এর সঙ্গে সঙ্গে তিনিও ব্যাপক জনপ্রিয় হয়ে উঠেছেন।

রাজকোটের ২৪ বছর বয়সী যুবক রমন সিং প্রতি রাতে খাবার পর চুন্নি লালের আগুন পান খান। তিনি বলেন, ‘রাতের খাবারের পর এই পান না হলে চলে না। প্রথমে ভয় ভয় করলেও চিবনো শুরুর পর মুখে শীতলতা আসে। আর এই পান খেলে গলা ব্যথা কমে।’ 

রাজকোটের অন্য পান বিক্রেতারাও এই ধরনের পান বিক্রি শুরু করেছেন বলে জানান রমন।

মেইল অনলাইন জানায়, রাজকোটে এত দিন পানের সঙ্গে চুন, সুপারি, জর্দা, লবঙ্গ, এলাচ, ধনিয়া ইত্যাদি খাওয়ার প্রচলন ছিল। কিন্তু আগুন পানের কারণে অন্য ধরনগুলোর চাহিদা কমেছে। আগুন পানের মধ্যে সুপারি, চুনের সঙ্গে লবঙ্গ দেওয়া হয়।  

চুন্নি লাল বলেন, ‘আমরা ২৫ ধরনের পান বিক্রি করি। এর মধ্যে চকোলেট, মিন্টসহ হরেক রকমের স্বাদের পান রয়েছে। ব্যবসার প্রতিযোগিতায় টিকে থাকতেই আমরা এই নতুনত্ব এনেছি। প্রথম দিকে এটি খেতে মানুষ সংশয় বোধ করত। তবে এখন এটিই বেশি পছন্দ করে ক্রেতারা।’

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement