পোশাক খাতে ৩ শতাংশ প্রণোদনা চায় বিজিএমইএ

১৭ জুন ২০১৯, ০৭:৪৫

তৈরি পোশাক খাতে ২০১৯-২০ অর্থবছরের বাজেটে ৩ শতাংশ নগদ প্রণোদনা দেওয়ার দাবি করেছে তৈরি পোশাকশিল্প মালিকদের সংগঠন বিজিএমইএ।

বাজেট নিয়ে প্রতিক্রিয়া জানাতে রাজধানীর একটি হোটেলে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে বিজিএমইএর সভাপতি রুবানা হক এ দাবি করেন বলে বার্তা সংস্থা ইউএনবির এক প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়।  

গতকাল রোববার রুবানা হক বলেন, ‘আগামী অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে আনুমানিক ১ শতাংশ নগদ সহায়তা দেওয়ার প্রস্তাব রয়েছে, যা এ শিল্পের জন্য যথেষ্ট নয়। সুতরাং চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় এবং আন্তর্জাতিক বাজারে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে ৩ শতাংশ নগদ প্রণোদনা দেওয়ার দাবি জানাচ্ছি।’

সামাজিক নিরাপত্তার জন্য ৭৪ হাজার ৩৬৭ কোটি টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে, যা খুবই ভালো মন্তব্য করে পোশাক খাতের কর্মীদের সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচির আওতায় আনা হবে বলে আশা প্রকাশ করেন রুবানা।

বিজিএমইএর সভাপতি আরো বলেন, ‘প্রস্তাবিত বাজেট ব্যবসা ও জনবান্ধব। কিন্তু আমরা শতভাগ সন্তুষ্ট হতে পারছি না। আমরা ৭০ ভাগ সন্তুষ্ট।’

এ সময় ডলারের দাম টাকার বিপরীতে অবমূল্যায়নের দাবি বিবেচনায় নিতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানায় বিজিএমইএ। সংগঠনটির সভাপতি আরো বলেন, ‘ডলারপ্রতি এক টাকা অবমূল্যায়ন করলে পোশাকশিল্প বছরে প্রায় তিন হাজার ৪০০ কোটি টাকা পাবে। সেটি হলে পোশাক খাতের প্রতিযোগিতার সক্ষমতা বাড়বে।’

বাজেট ঘোষণার আগে রফতানি খাতের জন্য ডলারপ্রতি অতিরিক্ত পাঁচ টাকা বিনিময় হার দেওয়ার দাবি করেছিল বিজিএমইএ।