Beta

দাম কমবে যেসব পণ্যের

১৩ জুন ২০১৯, ১৮:৩৬ | আপডেট: ১৩ জুন ২০১৯, ২১:০৪

নিজস্ব প্রতিবেদক

২০১৯-২০ অর্থবছরের জন্য প্রস্তাবিত বাজেটে আমদানি শুল্ক কমানোর কারণে দাম কমতে পারে স্বর্ণ, বৈদ্যুতিক পাখা, অগ্নিনির্বাপক যন্ত্র, ইট, দেশে তৈরি ফ্রিজ, ক্যানসারের ওষুধ, দেশে তৈরি লিফট, রপ্তানিমুখী পোশাক, চামড়াজাত জুতা, রড, দেশে তৈরি ইলেকট্রিক মোটর, বিস্কুট ও বেকারি পণ্যের।

ক্যানসার প্রতিরোধক ওষুধ উৎপাদনে ব্যবহৃত কাঁচামালে কর অব্যাহতি সুবিধা দেওয়া হয়েছে। অগ্নিনির্বাপণ ব্যবস্থায় ব্যবহৃত উপকরণের শুল্ক কমানো হয়েছে।

পাউরুটি, বনরুটি, হাতে তৈরি কেক প্রতি কেজি ১৫০ টাকা পর্যন্ত মূসক অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে।

দেশে উৎপাদিত মোটরসাইকেলের দাম কমবে।

কৃষি যন্ত্রপাতি পাওয়ার রিপার, পাওয়ার টিলার অপারেটেড সিডার, কম্বাইন্ড হারভেস্টর, লোরোটারি টিলার, লিস্ট পাম্পের স্থানীয় উৎপাদন পর্যায়ে মূসক অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। ফলে এসব পণ্যের দাম কমবে।

২০১৯-২০ অর্থবছরের জন্য আজ বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদে পাঁচ লাখ ২৩ হাজার ১৯০ কোটি টাকার বাজেট উপস্থাপন করেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। জিডিপি প্রবৃদ্ধির লক্ষ্য ধরা হয়েছে ৮.২০ শতাংশ। ঘাটতি এক লাখ ৪৫ হাজার ৩৮০ কোটি টাকা। জিডিপি প্রবৃদ্ধি ৮.২ শতাংশ। মূল্যস্ফীতি ৫.৫ শতাংশ। ভ্যাট আইন বাস্তবায়ন করা হবে। রাজস্ব আয়ের লক্ষ্যমাত্রা তিন লাখ ৭৭ হাজার ৮১০ কোটি টাকা। উন্নয়ন ব্যয় দুই লাখ দুই হাজার ৭২১ কোটি টাকা। অনুন্নয়ন ব্যয় তিন লাখ ২০ হাজার ৪৫১ কোটি টাকা। চলতি অর্থবছরের মূল বাজেটের চেয়ে প্রস্তাবিত বাজেট ১২ দশমিক ৬১ শতাংশ বড়। ৩০ জুন এই বাজেট পাস হবে।

অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বিকেল সোয়া ৩টার দিকে জাতীয় সংসদে বক্তব্য শুরু করেন। কিছুক্ষণ পর অসুস্থ হয়ে পড়লে অর্থমন্ত্রীর পরিবর্তে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা স্পিকারের অনুমতি নিয়ে নিজেই বাজেট বক্তব্য দেন।

Advertisement