Beta

ইলিশ ধরায় ভৈরবের চার জেলেকে জরিমানা

১২ অক্টোবর ২০১৯, ১৫:৪১

কারেন্ট জাল দিয়ে ইলিশ ধরার অপরাধে আজ শনিবার কিশোরগঞ্জের ভৈরবের চার জেলেকে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। ছবি : এনটিভি

নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে কারেন্ট জাল দিয়ে ইলিশ মাছ ধরার অপরাধে কিশোরগঞ্জের ভৈরব উপজেলায় চার জেলেকে অর্থ জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

আজ শনিবার সকালে উপজেলার আগানগর ইউনিয়নের শ্যামপুর, টুকচানপুর এলাকার মেঘনা নদীতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) লুবনা ফারজানার নেতৃত্বে ভ্রাম্যমাণ আদালত অভিযান চালিয়ে ওই চার জেলের প্রত্যেককে পাঁচ হাজার টাকা করে জরিমানা করেন।

সেই জেলেরা হলেন বাদল মিয়া (৩০), মাসুদ মিয়া (৩৮), মাহতাব (২৫) ও আরশ মিয়া (১৯)।

অভিযান অব্যাহত থাকবে জানিয়ে ইউএনও লুবনা ফারজানা বলেন, এ সময় এক লাখ মিটার কারেন্ট জাল এবং ৩৫ কেজি ইলিশ জব্দ করা হয়। পরে আদালতের নির্দেশে কারেন্ট জালগুলো পুড়িয়ে ধ্বংস এবং মাছগুলো উপজেলার শিবপুর ইউনিয়নের ছনছাড়া এতিমখানায় দেওয়া হয়। তিনি আরো বলেন, যারাই সরকারি আইন অমান্য করবে তাদের শাস্তির মুখোমুখি হতে হবে।

ভৈরব নৌপুলিশের সহযোগিতায় পরিচালিত ওই ভ্রাম্যমাণ আদালতে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা জ্যেষ্ঠ মৎস্য কর্মকর্তা মো. লতিফুর রহমান, উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা মেহেদি হাসান ও আগানগর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান সেলিম আহমেদ।

গত ৯ অক্টোবর থেকে ৩০ অক্টোবর পর্যন্ত দেশব্যাপী ইলিশ ধরা, বিক্রি, মজুদ ও পরিবহনের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে মৎস্য অধিদপ্তর।

উপজেলা জ্যেষ্ঠ মৎস্য কর্মকর্তা মো. লতিফুর রহমান বলেন, উপজেলার তিন হাজার ৩৫ জেলে কার্ডধারী। এর মধ্যে ৬৯৯ জন ইলিশ শিকারী জেলে এ বছর ইলিশ ধরা নিষিদ্ধকালীন ২০ কেজি চাল পাবে তারা। জেলা প্রশাসক বরাবর বরাদ্দ প্রস্তাব পাঠানো হয়েছে। আগামী ১৫ তারিখে সেই বরাদ্দের চাল পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

Advertisement