Beta

পুলিশের অনুমতি ছাড়াই বিএনপির সমাবেশ শুরু

১২ অক্টোবর ২০১৯, ১৪:৪৮

নিজস্ব সংবাদদাতা
আজ শনিবার রাজধানীর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে ভারতের সঙ্গে দেশবিরোধী চুক্তি বাতিল এবং আবরার হত্যার প্রতিবাদে সমাবেশ কর্মসূচি পালন করছে বিএনপি। ছবি : সাইফুল সুমন

ভারতের সঙ্গে দেশবিরোধী চুক্তি বাতিল ও আবরার হত্যার প্রতিবাদে বিএনপির পূর্বঘোষিত সমাবেশ শুরু হয়েছে। পুলিশের পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিক অনুমতি না পেলেও আজ শনিবার দুপুর ২টায় রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে এ সমাবেশ শুরু হয়।

সমাবেশের শুরুতে বক্তব্য দেন সদ্য বিদায়ী ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক আকরামুল হাসান, মহিলা দলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হেলেন জেরীন খান। সমাবেশ সঞ্চালনা করছেন বিএনপির প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী।

সমাবেশের অনুমতির বিষয়ে বিএনপির সহসাংগঠনিক সম্পাদক আবদুস সালাম আজাদ এনটিভি অনলাইনকে বলেন, ‘আমরা ডিএমপি অতিরিক্ত কমিশনার মনিরুল ইসলামকে অবহিত করেছি সমাবেশের বিষয়ে। তাঁরা বলেছেন, আমরা কমিশনারকে জানাব।’

‘আমরা তাদের বলেছি, আমাদের দলের নেতাকর্মীরা চলে আসছে। আমরা সমাবেশ করতে চাই। তখন তাঁরা (পুলিশ কর্মকর্তা) বলেন, ঠিক আছে, আপনারা যান।’

সালাম আজাদ আরো বলেন, আমরা আশা করছি, সরকার আমাদের শান্তিপূর্ণ সমাবেশ করতে দেবে। আমাদের সমবেশ হবে শান্তিপূর্ণ।

এদিকে শনিবার সকাল থেকে সমাবেশে যোগ দিতে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আসতে শুরু করে দলের নেতাকর্মীরা। এর আগে সকাল ৯টা থেকে নয়াপল্টনে অবস্থান নেয় পুলিশ। বেলা ১২টার দিকে পুলিশের সঙ্গে বিএনপি নেতাকর্মীদের দুই দফা ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনাও ঘটে।

অন্যদিকে পুলিশ বিএনপির নেতাকর্মীদের সামনে রাস্তার মাঝে দাঁড়িয়ে ব্যারিকেড তৈরি করেছে।

এর আগে সকালে সমাবেশের অনুমতির জন্য বিএনপির প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানীর নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধিদল ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) কার্যালয়ে গেলেও কমিশনারের সাক্ষাৎ পায়নি।

তখন বিএনপির সহসাংগঠনিক সম্পাদক আবদুস সালাম আজাদ এনটিভি অনলাইনকে বলেছিলেন, ‘আমরা সমাবেশের অনুমতির জন্য কমিশনারের কার্যালয়ে এসেছিলাম। কিন্তু তিনি একটি মিটিংয়ে থাকায় আমরা সাক্ষাৎ করতে পারিনি। তাই সেখান থেকে এখন পার্টি অফিসে এসেছি। এখনো কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি।’

পরে দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে বিএনপির নেতারা আবার কমিশনারের সঙ্গে দেখা করতে যান। কিন্তু তখনো দেখা করতে পারেননি বলে জানান সালাম আজাদ।

Advertisement