Beta

আবরার হত্যার আসামি মুয়াজ উত্তরা থেকে গ্রেপ্তার

১২ অক্টোবর ২০১৯, ১৪:১৬

নিজস্ব প্রতিবেদক

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) ছাত্র আবরার ফাহাদ রাব্বীকে পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় এজাহারভুক্ত আরো এক আসামিকে রাজধানীর উত্তরা থেকে গ্রেপ্তার করেছে গোয়েন্দা পুলিশ। এ নিয়ে এই মামলায় মোট ১৯ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

গ্রেপ্তার হওয়া মো. মুয়াজ আবু হুরায়রা (২১) বুয়েটের ইইই বিভাগের ১৭তম ব্যাচের ছাত্র। তিনি এই মামলার ১৮তম আসামি।

ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) মিডিয়া উইংয়ের ডেপুটি পুলিশ কমিশনার ওবাইদুর রহমান দুপুরে এনটিভি অনলাইনকে বলেন, ‘আজ শনিবার বেলা ১১টার দিকে মুয়াজকে গোয়েন্দা ও অপরাধ তথ্য বিভাগ গ্রেপ্তার করেছে। তাঁকে গোয়েন্দা কার্যালয়ে নিয়ে আসা হয়েছে।’

গত রোববার দিবাগত মধ্যরাতে বুয়েটের সাধারণ ছাত্র ও বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ আবরারকে শেরেবাংলা হলের দ্বিতীয় তলা থেকে অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নিয়ে যায়। সোমবার সকাল সাড়ে ৬টার দিকে চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনায় নিহত আবরারের বাবা মো. বরকত উল্লাহ চকবাজার থানায় লিখিত অভিযোগ করলে একটি হত্যা মামলা দায়ের হয়।

সেই রাতেই বুয়েট শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মেহেদী হাসান রাসেলসহ ১১ জনকে সংগঠন থেকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ।

এদিকে আবরার ফাহাদকে পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় আজ শনিবার পর্যন্ত মোট ১৯ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি)। এর মধ্যে গত বৃহস্পতিবার এ ঘটনায় প্রথম ঢাকা ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন মামলার আসামি বুয়েটের বায়োমেডিকেল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের তৃতীয় বর্ষের ছাত্র এবং বুয়েট ছাত্রলীগের উপসমাজসেবা সম্পাদক ইফতি মোশাররফ সকাল। এবং গতকাল শুক্রবার জবানবন্দি দিয়েছেন বুয়েট ছাত্রলীগের সাবেক ক্রীড়া সম্পাদক মেফতাহুল ইসলাম জিয়ন। এ চাঞ্চল্যকর হত্যার ঘটনা তদন্তের দায়িত্ব পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগকে দেওয়া হয়েছে।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন বুয়েট শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মেহেদী হাসান রাসেল, সহসভাপতি মুহতাসিম ফুয়াদ, সাংগঠনিক সম্পাদক মেহেদী হাসান রবিন, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক অনিক সরকার, ক্রীড়া সম্পাদক মেফতাহুল ইসলাম জিয়ন, সাহিত্য সম্পাদক মনিরুজ্জামান মনির, উপসমাজকল্যাণ সম্পাদক ইফতি মোশাররফ সকাল, উপদপ্তর সম্পাদক মুজতবা রাফিদ, দুই সদস্য মুনতাসির আল জেমি ও এহতেশামুল রাব্বি তানিম, শামসুল আরেফিন রাফাত, মনিরুজ্জামান মনির, মো. আকাশ হোসেন, সাখাওয়াত ইকবাল অভি, অমিত সাহা, মিজানুর রহমান মিজান, মাজেদুল ইসলাম,  তোহা ইসলাম ও শামিম বিল্লাহ।

Advertisement