Beta

ময়মনসিংহেও সিলেটের মতো ‘নাটক’, বিএনপির সমাবেশ রেলওয়ে কৃষ্ণচূড়া চত্বরে

২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১১:৩১ | আপডেট: ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১২:১৬

কারাবন্দি বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবিতে আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে ময়মনসিংহ নগরীর রেলওয়ে কৃষ্ণচূড়া চত্বরে বিভাগীয় সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে। ছবি : এনটিভি

কারাবন্দি বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবিতে আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে ময়মনসিংহ নগরীর রেলওয়ে কৃষ্ণচূড়া চত্বরে বিভাগীয় সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে। 

নানা নাটকের পর আজ সকালে জেলা পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে সমাবেশের অনুমতি দেওয়া হয়েছে বলে এনটিভি অনলাইনকে জানিয়েছেন বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক এমরান সালেহ প্রিন্স। তিনি বলেন, দুপুর ৩টা থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে সমাবেশ শুরু হবে। 

এরই মধ্যে ময়মনসিংহ বিভাগের বিভিন্ন জেলা ও উপজেলা থেকে নেতাকর্মীরা জেলা বিএনপির কার্যালয়ের সামনে থেকে রেলওয়ে কৃষ্ণচূড়া চত্বরের দিকে মিছিল নিয়ে রওনা হয়েছে।

সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে লাগাতার সারা দেশে সমাবেশ করছে বিএনপি। এর আগে সিলেটে বিভাগীয় সমাবেশ করার ক্ষেত্রে নানা প্রতিবন্ধকতা তৈরি করে পুলিশ প্রশাসন। জেলা রেজিস্ট্রি মাঠে সমাবেশের মঞ্চ একবার ছোট করার নির্দেশ দেয়, পরে সেই মঞ্চই ভেঙে নিয়ে যাওয়া হয়, শেষ মুহূর্তে সমাবেশের দিন দুপুরে রেজিস্ট্রি মাঠেই বিভাগীয় সমাবেশ করার অনুমতি পায় বিএনপি। একই অবস্থা তৈরি হয় ময়মনসিংহের সমাবেশের ক্ষেত্রেও।

এ দিকে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান এ জেড এম জাহিদ হোসেনের বরাত দিয়ে বিএনপির চেয়ারপারসনের প্রেস উইংয়ের কর্মকর্তা শামসুদ্দিন দিদারও বলেছেন, যথাসময়ে দেশনেত্রী খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে সমাবেশ রেলস্টেশন সংলগ্ন কৃষ্ণচূড়া চত্বরে অনুষ্ঠিত হবে। সমাবেশে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খানসহ কেন্দ্রীয় বিএনপি ও বিভিন্ন অঙ্গ সংগঠনের নেতারা বক্তব্য দেবেন।

আজ সকালে শহরের নতুন বাজারের হরিকিশোর রায় রোডের বিএনপির জেলা কার্যালয়ে গিয়ে দেখা যায়, বিপুল নেতাকর্মী কার্যালয়ের ভিতরে ও বাইরে অবস্থান নিয়েছে। ভেতরে এমরান সালেহ প্রিন্সও রয়েছেন।

বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক এমরান সালেহ প্রিন্স তখন বলেছিলেন, গত ৯ সেপ্টেম্বর জেলা বিএনপির পক্ষ থেকে সার্কিট হাউজ মাঠ, রেলওয়ে কৃষ্ণচূড়া চত্বর অথবা টাউন হল চত্বরের মধ্যে যেকোনো একটি জায়গায় বিভাগীয় মহাসমাবেশ করার অনুমতি চেয়ে জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারকে চিঠি দেওয়া হয়। গত সোমবার পুলিশ সুপার শাহ মো আবিদ হোসেনর সঙ্গে সাক্ষাৎ করে সমাবেশের অনুমিত প্রদানের বিষয়ে জানতে চাইলে পুলিশ সুপার বলেছেন, বিষয়টি তিনি দেখছেন।

পরের দিন মঙ্গলবার জেলা প্রশাসকের সঙ্গে সাক্ষাৎ করে অনুমতির বিষয়ে জানতে চাইলে পুলিশ প্রতিবেদনের জন্য পাঠানো হয়েছে বলে জানানো হয়। কিন্তু গতকাল বুধবার রাতেও সমাবেশ করার অনুমতি পাওয়া যায়নি।

বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক আরো বলেছিলেন, প্রশাসনের পক্ষ থেকে কোনো ধরনের বিরূপ আচরণ পরিলক্ষিত না হওয়ায় আমরা ধরে নিয়েছিলাম যে, হয়তোবা পরে অনুমতি দেওয়া হবে। তাই রেলওয়ে কৃষ্ণচূড়া চত্বরে গতকাল দুপুরের দিকে মঞ্চ নির্মাণের কাজ শুরু করা হয়। কিন্তু  সন্ধ্যার পর আমরা অনুমতির জন্য জেলা প্রশাসনের কার্যালয়ে অপেক্ষায় থাকাবস্থায় খবর পাই পুলিশ মঞ্চ নির্মাণের কাজ বন্ধ করে দিয়েছে। লোকজনকে মাইক নিয়ে চলে যেতে বলেছে।

Advertisement