Beta

বাসায় ফিরতে দেরি করায় স্ত্রীকে ‘পিটিয়ে হত্যা’

১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১৫:৫৭

নিহত পোশাক শ্রমিক কংকন রানী দাসের লাশ ঘিরে স্বজনের আহাজারি। ছবি : এনটিভি

সাভারে একটি পোশাক কারখানায় কাজ শেষে বাসায় ফিরতে দেরি হওয়ায় এক নারী পোশাক শ্রমিককে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে বলে স্বামীর বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনার পর থেকে ওই নারীর স্বামী পলাতক। গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত নারীর নাম কংকন রানী দাস। তিনি হবিগঞ্জের বানিয়াচং উপজেলার পাহাড়পুর গ্রামের সুকান্ত দাস শৈলানের স্ত্রী। তিনি সাভারের পাকিজা ডাইং অ্যান্ড প্রিন্টিং কারখানার অপারেটর ছিলেন।

নিহত কংকন রানী দাসের বাবা কালীপদ দাস জানান, গতকাল রাতে পোশাক কারখানায় কাজ শেষে দেরিতে বাসায় ফেরার অভিযোগে কংকনকে তাঁর স্বামী সুকান্ত দাস শৈলান এলোপাতাড়ি পিটিয়ে হত্যা করে। পরে তাঁর মুখে বিষ ঢেলে বিষয়টি আত্মহত্যা বলে প্রচার করার চেষ্টা করে।

পরে প্রতিবেশীরা খবর পেয়ে কংকনকে সাভারের এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করলে আজ শুক্রবার সকালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু হয় তাঁর। পরে ময়নাতদন্তের জন্য লাশটি রাজধানীর শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজের মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ। এ ঘটনায় সাভার মডেল থানায় একটি হত্যা মামলার প্রস্তুতি চলছে।

এ ঘটনায় সুকান্ত দাসকে আটকের চেষ্টা চলছে বলে জানিয়েছেন সাভার মডেল থানার উপপরিদর্শক (এসআই) নাজমুল।

Advertisement