Beta

একুশে পদকপ্রাপ্ত গবেষক মংছিন রাখাইন আর নেই

০৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২৩:১৫

সাহিত্যিক ও সাংবাদিক মংছেনচীং মংছিন রাখাইনের মরদেহে ফুলেল শ্রদ্ধা। ছবি : এনটিভি

একুশে পদকপ্রাপ্ত গবেষক, সাহিত্যিক ও সাংবাদিক মংছেনচীং মংছিন রাখাইন আর নেই। গতকাল শনিবার বেলা ১১টায় খাগড়াছড়ির মাটিরাঙা উপজেলার তবলছড়ি ইউনিয়নে নিজ মেয়ের বাসায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি।

ফুসফুসের রোগসহ বিভিন্ন দুরারোগ্য ব্যাধিতে আক্রান্ত ছিলেন মংছেনচীং মংছিন। দীর্ঘদিন রাজধানীর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে চিকিৎসাধীন ছিলেন তিনি।

মৃত্যুর পর তাঁর মরদেহ রোববার বিকেলে খাগড়াছড়ির মহালছড়ি উপজেলার মানিক ডাক্তারপাড়ার নিজ বাড়িতে আনা হলে কফিনে ফুল দিয়ে বিভিন্ন ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে শেষ শ্রদ্ধা জানানো হয়।

মহালছড়ি গ্রাম্য শ্মশানে সামাজিক রীতিনীতি শেষে সাংবাদিক মংছেনচীং মংছিন রাখাইনের শেষ ইচ্ছানুযায়ী দাহক্রিয়ার পরিবর্তে কবর দেওয়া হয়েছে আজ। শেষ কৃত্যানুষ্ঠানে তাঁর আত্মীয়স্বজনরা উপস্থিত ছিলেন।

মংছেনচীং মংছিন রাখাইন কক্সবাজারের রাখাইনপাড়ায় ১৯৬১ সালে জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর বয়স হয়েছিল ৫৮ বছর।

২০১৬ সালে সাহিত্যে নিয়ে গবেষণা ও বিভিন্ন ক্ষেত্রে বিশেষ অবদানের জন্য একুশে পদক পান তিনি। পার্বত্যাঞ্চলের তিনি একমাত্র একুশে পদকপ্রাপ্ত ব্যক্তি ছিলেন। এ ছাড়া বিভিন্ন ক্ষেত্রে অবদানের জন্য অসংখ্য পুরস্কার পান। তিনি স্ত্রী ও দুই কন্যাসহ অসংখ্য আত্মীয়স্বজন ও শুভাকাঙ্ক্ষী রেখে গেছেন। তাঁর স্ত্রী শোভারাণী ত্রিপুরাও একাধারে শিক্ষিকা ও সাহিত্যে অবদানের জন্য ২০১৭ সালে বেগম রোকেয়া পুরস্কার পান।

মংছেনচীং মংছিনের মৃত্যুতে খাগড়াছড়ির সাংসদ কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা, খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কংজরী চৌধুরী, জেলা প্রশাসক প্রতাপ চন্দ্র বিশ্বাস, খাগড়াছড়ি প্রেসক্লাবসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠন শোক প্রকাশ করেছে।

Advertisement