Beta

নরসিংদীতে ‘বন্দুকযুদ্ধে মাদক ব্যবসায়ী’ নিহত

৩১ আগস্ট ২০১৯, ১০:০৫ | আপডেট: ৩১ আগস্ট ২০১৯, ১১:৩৪

নরসিংদী সদর উপজেলায় কথিত বন্দুকযুদ্ধে মিঠুন নামের এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। পুলিশের দাবি, তিনি একজন অস্ত্র ও মাদক ব্যবসায়ী।

আজ শনিবার ভোরে উপজেলার মাধবদী এলাকার টাটাপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে। এ সময় আরো তিনজনকে আটক করা হয়েছে বলেও দাবি পুলিশের।

নিহত মিঠুন উপজেলার টাটাপাড়া এলাকার বাসিন্দা। আটক ব্যক্তিরা হলেন টাটাপাড়ার বাসিন্দা হৃদয় মিয়া (২০), মাইনুল ইসলাম (২৪) ও মেহেদী হাসান (২৫)।

পুলিশের ভাষ্যমতে, গত বৃহস্পতিবার গোপন সংবাদের ভিত্তিতে প্রথমে নারায়ণগঞ্জের কাঞ্চন এলাকা থেকে মিঠুন ও তাঁর সহযোগী সোহেলকে আটক করা হয়। পরে তাঁদের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে মিঠুনকে নিয়ে অস্ত্র উদ্ধারে টাটাপাড়ায় অভিযানে যায় গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)।

এ সময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে মিঠুনের সহযোগীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছুড়ে। পুলিশও পাল্টা গুলি করে। উভয়পক্ষের মধ্যে বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে। একপর্যায়ে গুলিবিদ্ধ হয়ে আহত হন মিঠুন। ঘটনাস্থল থেকে দুটি বিদেশি পিস্তল, একটি পাইপগান ও নয়টি গুলি উদ্ধার করা হয়।

এ ছাড়া আটক করা হয় মিঠুনের তিন সহযোগীকে। পরে মিঠুনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনায় ডিবি পুলিশের এসআইসহ তিন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন বলেও পুলিশের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়।

জেলা গোয়েন্দা পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) আবদুল গাফফার দাবি করেন, নিহত মিঠুন মাধবদীর চিহ্নিত মাদক ও অস্ত্র বিক্রেতা। তাঁর বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় হত্যা, অস্ত্র, বিস্ফোরক ও মাদক সংক্রান্ত ১২টিরও বেশি মামলা রয়েছে।

Advertisement