Beta

নোয়াখালীতে স্ত্রীকে গণধর্ষণ, বিচার চাওয়ার পর স্বামীর ওপর এসিড

২৭ আগস্ট ২০১৯, ০০:৪৪

মো. মাসুদ পারভেজ, নোয়াখালী
স্ত্রীর ধর্ষণের প্রতিবাদ করায় দুর্বৃত্তদের ছোঁড়া অ্যাসিডে দগ্ধ হয়ে হাসপাতালের বিছানায় কাতরাচ্ছেন স্বামী। ছবি : এনটিভি

নোয়াখালীর সুবর্ণচর উপজেলায় স্ত্রীর গণধর্ষণের বিচার চেয়ে মানববন্ধন শেষে বাড়ি ফেরার পর দুর্বৃত্তদের ছোঁড়া এসিডে ঝলসে গেছে স্বামী শরীর। রোববার গভীর রাতে এ ঘটে।

নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) জানান, এসিডদগ্ধ ওই ব্যক্তিকে হাসপাতালে ভর্তি করে প্রয়োজনীয় চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। তাঁর অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাঁকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। তাঁর বুক, হাত ও উরুসহ শরীরের ৯০ শতাংশ ঝলসে গেছে।

এসিডদগ্ধ ব্যক্তি ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গত জুলাই মাসে ওই ব্যক্তির স্ত্রীকে (২৫) গণধর্ষণ করে পালিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা। এ ঘটনায় ওই নারীর পরিবার চরজব্বার থানায় ধর্ষণ মামলা করতে গেলে পুলিশ তা নেয়নি। মামলা না নেওয়ায় নোয়াখালী আমলী আদালতে মামলা করে নারীর পরিবার। কিন্তু আদালত থেকে আবার তদন্তের দায়িত্ব দেওয়া হয় চরজব্বার থানা পুলিশকে। কিন্তু পুলিশ তিন লাখ টাকা নিয়ে উল্টো ওই নারীর পরিবারের বিরুদ্ধে অাদালতে প্রতিবেদন দেয় বলে অভিযোগ করেন ভুক্তভোগীরা।

এতদিন সঠিক বিচার না পেয়ে  রোববার সকালে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের লোকজন ও এলাকাবাসী একত্রিত হয়ে নোয়াখালী জেলা প্রশাসকের ভবনের সামনে ধর্ষণের সুষ্ঠু বিচার দাবিতে মানববন্ধন করে। মানববন্ধন করায় ক্ষিপ্ত হয়ে দুর্বৃত্তরা রোববার রাতে ওই ব্যক্তির ঘরে ঢুকে তাঁকে ঘুমন্ত অবস্থায় এসিড নিক্ষেপ করে হত্যার চেষ্টা করে। যাওয়ার সময় দুর্বৃত্তরা পরিবারের লোকজনকে হত্যার হুমকি দেন অভিযোগ পাওয়া গেছে।

সূবর্ণচর উপজেলার চরজব্বার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহেদ জানান, আগের ধষর্ণের ঘটনাটি আমাদের নজরে আছে। বর্তমানে সেই মামলার তদন্তের দায়িত্ব পড়েছে পিআইবির ওপর। পরের এসিডের নিক্ষেপের ঘটনায় অভিযোগ করলে আমরা ব্যবস্থা নিব।

Advertisement