Beta

যমুনা নদীতে নিখোঁজ পুলিশ কনস্টেবলের লাশ উদ্ধার

১৫ আগস্ট ২০১৯, ১৭:২০

শরীফুল ইসলাম ইন্না, সিরাজগঞ্জ
সিরাজগঞ্জের কাজিপুরে যমুনা নদীতে নৌকা ডুবে নিহত পুলিশ কনস্টেবল মো. বিল্লাল হোসেন। ছবি : এনটিভি

সিরাজগঞ্জের কাজিপুর উপজেলার যমুনা নদীতে বিয়ের বরযাত্রীবোঝাই নৌকা ডুবে নিখোঁজ পুলিশ কনস্টেবল মো. বিল্লাল হোসেনের (৩১) মৃতদেহ উদ্ধার করেছে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল। আজ বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টার দিকে উপজেলার সিন্নার চর এলাকায় যমুনা নদী থেকে তাঁর মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়।

নিহত বিল্লাল হোসেন পুলিশের ময়মনসিংহ রেঞ্জের উপমহাপরিদর্শক (ডিআইজি) নিবাস চন্দ্র মাঝির বাসার আর্দালি হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

গতকাল বুধবার দুপুরে কাজিপুরের মনসুরনগর ইউনিয়নের দুর্গম সিন্নার চর এলাকায় নৌকাডুবির ঘটনা ঘটে। এ নিয়ে ওই ঘটনায় দুজনের লাশ উদ্ধার করা হলো।

কাজিপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. জাহিদ হাসান সিদ্দিকী এ তথ্য নিশ্চিত করে জানান, সকাল থেকে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল যমুনা নদীতে উদ্ধার কাজ শুরু করে। যেখানে নৌকাটি ডুবে গিয়েছিল তার দুই কিলোমিটার ভাটিতে পুলিশ সদস্য বিল্লাল হোসেনের মৃতদেহ ভেসে ওঠে। পরে ডুবুরি দল তাঁর মৃতদেহ উদ্ধার করে।

ইউএনও আরো জানান, নৌকাডুবির ঘটনায় জাবেদ তরফদার (৬৫) নামের আরো একজন নিখোঁজ রয়েছে। তাঁকে উদ্ধারে কাজ চলছে ।

প্রসঙ্গত, গতকাল বুধবার জামালপুরের সরিষাবাড়ী উপজেলা থেকে আসা ৩০ জনের একটি বিয়ের যাত্রীবাহী নৌকা বগুড়ার সারিয়াকান্দি উপজেলায় যাচ্ছিল। নৌকাটি কাজিপুর উপজেলার সিন্নার চর এলাকায় পৌঁছলে যমুনার প্রবল স্রোতে ডুবে যায়। এতে নৌকায় থাকা বরযাত্রীরা নদীতে ডুবে যায়। খবর পেয়ে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে রেনু (৬০) নামের এক নারীর মৃতদেহ উদ্ধার করে। বাকিরা সাঁতরে তীরে পৌঁছাতে পারলেও এক পুলিশ সদস্যসহ দুজন নিখোঁজ হয়। তাদের উদ্ধারে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস সদস্যরা অভিযান চালায়। আজ পুলিশ সদস্যের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়।

Advertisement