Beta

ফরিদপুরে দুই বাসের সংঘর্ষে তিনজন নিহত

১৫ আগস্ট ২০১৯, ১৩:৫৭

আজ বৃহস্পতিবার সকাল ৯টার দিকে ফরিদপুরের ভাঙ্গা-বিশ্বরোডসংলগ্ন এলাকায় ফরিদপুর-বরিশাল মহাসড়কে দুই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে তিনজন নিহত হন। ছবি : এনটিভি

ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলায় দুটি বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে নারীসহ তিনজন নিহত হয়েছেন। এ সময় আহত হয়েছেন আরো ৩০ যাত্রী।

আজ বৃহস্পতিবার সকাল ৯টার দিকে ভাঙ্গা বিশ্বরোডসংলগ্ন এলাকায় ফরিদপুর-বরিশাল মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে। প্রায় দুই ঘণ্টার চেষ্টায় নিহত ও আহত ব্যক্তিদের উদ্ধার করা হয়।

নিহত ব্যক্তিরা হলেন নগরকান্দা উপজেলার রামনগর গ্রামের ধলা ফকিরের ছেলে বাসের চালক রওশন ফকির (৪৫) ও রাজবাড়ীর পাচুরিয়া গ্রামের লক্ষ্মণ কুণ্ডের স্ত্রী মিরা কুণ্ড (৬০)। পরে দুপুরে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে অপর এক ব্যক্তি নিহত হন। তাঁর নাম-পরিচয় জানা যায়নি।

আহত ব্যক্তিদের মধ্যে রয়েছেন তৌহিদ আলম (২৮), আল আমিন (৩৫), শাহ আলম (৩২), মুন্নি (২২), সিয়াম (১০), সালমা বেগম (৪০), আসমা বেগম (৪১), জুঁই (৩০), রোজিনা (২৪), মনির হোসেন (৩৫), নিপু (২১), আবদুল্লাহ (৩২), ফারিহা (৩), শম্ভু (৩৫), শ্রেয় (১০), নিত্য (৪৮), মনিরা (৩৫), মামুন (২০), মৌসুমী (২২), মমতাজ (৪০), লিমা (১৯), লিয়াকত আলী (৪০), শাহিদা (৪০), মাশরাফি (১৩), নাসিমা (৪০), আমিন (৩৫), মিলন (৪০), হিল্লোল (৪০), এসআই পারভীন (৩৮) ও ভক্তি রানি (৪০)।

আহত ব্যক্তিদের ভাঙ্গা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। এ ছাড়া গুরুতর আহতদের জরুরি ভিত্তিতে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ কর্মকর্তা ডা. খালেদুর রহমান মিয়া জানান, রেফার্ড করা রোগীদের মধ্যে বেশ কয়েকজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

দুর্ঘটনার পর সড়কের দুই প্রান্তে শত শত যানবাহন আটকা পড়ে যায়। নিহত ও আহতদের উদ্ধার অভিযানে উপজেলা প্রশাসন, পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীসহ স্থানীয়রা অংশ নেন।

খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মুকতাদিরুল আহমেদ, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রবিউল ইসলাম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

ভাঙ্গা হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আতাউর রহমান বলেন, ‘বরিশাল থেকে রংপুরের উদ্দেশে ছেড়ে যাওয়া তুহিন পরিবহন ভাঙ্গা বিশ্বরোড অতিক্রম করলে বিপরীত দিক থেকে আসা টেকেরহাটগামী রাজু এন্টারপ্রাইজের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে একটি বাস অন্য বাসের অর্ধেক অংশে ঢুকে যায়। খবর পেয়ে আমরা দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে আহতদের উদ্ধারের চেষ্টা করি। পরে ফায়ার সার্ভিস ও পুলিশের সহায়তায় উদ্ধার অভিযান পরিচালনা করি। এ সময় রাজু এন্টারপ্রাইজ বাসটি কেটে চালক রওশন ফকিরের লাশ উদ্ধার করা হয়। এ ছাড়া তুহিন পরিবহনের যাত্রী মিরা কুণ্ডের লাশ উদ্ধার করা হয়। পরে দুপুরে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে অপর এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়।’

ইউএনও মুকতাদিরুল আহমেদ জানান, আহতদের উদ্ধার করে প্রয়োজনীয় চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

Advertisement