Beta

কক্সবাজারে সাগরে নেমে নিখোঁজ, এক ছাত্রের মৃতদেহ উদ্ধার

১০ আগস্ট ২০১৯, ২৩:১৭

কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতে গোসল করতে নেমে মারা গেছেন রুয়েটের ছাত্র মো. রফিক (ডানে)। নিখোঁজ রয়েছেন আরেক ছাত্র আরিফুল ইসলাম। ছবি : সংগৃহীত

কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতে গোসল করতে নামা রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের নিখোঁজ দুই শিক্ষার্থীর মধ্যে মো. রফিকের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। শনিবার বিকেল সোয়া ৫টার দিকে শৈবাল পয়েন্ট থেকে তাঁর মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। অপর শিক্ষার্থী আরিফুল ইসলাম এখনো নিখোঁজ রয়েছে।

নিহত রফিক রুয়েটের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র ও কক্সবাজার শহরের রুমালিয়ারছড়া এলাকার মো. জাহাঙ্গীর আলমের ছেলে। নিখোঁজ আরিফুল বইদ্দরঘোনা এলাকার জাহেদ হোসেনের ছেলে। দুই দিন আগে তাঁরা রাজশাহী থেকে ঈদের ছুটিতে গ্রামের বাড়ি কক্সবাজারে এসে সাগরে গোসল করতে নামেন।

সকাল সাড়ে ১০টার দিকে আটজন বন্ধু মিলে সৈকতের লাবণী পয়েন্টে গোসল করতে নামে। দুপুর ১২টার দিকে পাঁচ শিক্ষার্থী ভেসে যাওয়ার সময় তিনজনকে উদ্ধার করে ফায়ার সার্ভিস, লাইফ গার্ড ও সৈকতের কর্মীরা। পরে তাঁদের জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তাঁরা সবাই কক্সবাজার শহরের বাসিন্দা। ঈদের ছুটিতে বাড়িতে এসেছিলেন।

এক লাইফ গার্ড কর্মী বলেন, ‘বেলা ১১টার দিকে আটজন স্টুডেন্ট একটা টিউব নিয়ে সমুদ্রে গোসল করতে নামেন। আটজনের মধ্যে পাঁচজন টিউব থেকে পড়ে যান। আমাদের লাইফ গার্ড দুইজনকে উদ্ধার করে। একজন এমনিতেই চলে আসে। এরপর সবাইকে হাসপাতালে নেওয়া হয়।’

অন্যদিকে, কক্সবাজারের ট্যুরিস্ট পুলিশ সুপার মো. জিল্লুর রহমান বলেন, ‘আটজন বন্ধু মিলে সৈকতে বেড়াতে এসেছিলেন। ভাটার সময় সবাই দাঁড়িয়ে ছিলেন। হঠাৎ একটা ঢেউ আসে। তখনই পানিতে পড়ে যান সবাই। পাশে গুপ্ত খাল ছিল। খালে পড়ার কারণে সবাইকে বাঁচানো সম্ভব হয়নি। দুজনকে তাৎক্ষণিকভাবে আমরা উদ্ধার করেছি। পরবর্তীতে একজনকে উদ্ধার করা হয়। বর্তমানে সবাই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। যেহেতু নিখোঁজ একজন আছেন। তাঁকে উদ্ধারের জন্য সার্বিকভাবে আমরা চেষ্টা চালাচ্ছি।’

বর্তমানে নিখোঁজ শিক্ষার্থীকে উদ্ধারে ফায়ার সার্ভিস, লাইফ গার্ড, সৈকত কর্মী ও ট্যুরিস্ট পুলিশের সমন্বয়ে উদ্ধার কাজ চলছে।

Advertisement