নেত্রকোনায় সেপটিক ট্যাংকের গ্যাসে দুই শ্রমিকের মৃত্যু

১৭ জুলাই ২০১৯, ২৩:১৬

নেত্রকোনার দুর্গাপুর উপজেলায় সেপটিক ট্যাংকের সেন্টারিং কাঠ খুলতে ভেতরে যাওয়ার পর বিষাক্ত গ্যাসে দম বন্ধ হয়ে দুই শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। উপজেলার কাকৈরগড়া ইউনিয়নের শান্তিপুর গ্রামের হাফিজ মিয়ার বাড়িতে বুধবার দুপুরে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত দুজন হলেন ওই গ্রামের ওমর আলী তালুকদারের ছেলে মোস্তফা তালুকদার (৪৫) ও আবুল কাসেমের ছেলে শাহজাহান মিয়া (৩০)।

দুর্গাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মিজানুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ওই শ্রমিকরা প্রায় দেড় মাস আগে সেপটিক ট্যাংকের নির্মাণ কাজ করে ছিলেন। পরে বুধবার দুপুরে তারা সেপটিক ট্যাংকের নিচে নেমে এ কাজের সেন্টারিংয়ের কাঠ খুলতে গিয়েছিলেন। অব্যবহৃত নতুন এ ট্যাংকে সৃষ্ট এক জাতীয় বিষাক্ত গ্যাসে দম বন্ধ হয়ে তাৎক্ষণিক তাদের মৃত্যু হয়।

পরে খবর পেয়ে দুর্গাপুর ফায়ার সার্ভিসের একটি টিম গিয়ে রড দিয়ে টেনে ট্যাংকের ভেতর থেকে তাদের মরদেহ ওপরে তোলেন। এ সময় একটি মোমবাতি জ্বালিয়ে ট্যাংকের ভেতরে নেওয়ার পর বাতিটি নিভে যায়। এরপর ওই টিম নিশ্চিত হয় এখানে বিষাক্ত গ্যাস আছে এবং এ গ্যাসেই দুই শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে বলে জানান ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা।

ওসি আরো জানান, কারো অভিযোগ না থাকায় মর্গে না পাঠিয়ে তাদের মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এ ব্যাপারে থানায় অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে।