Beta

সিরাজগঞ্জে যমুনার পানি বিপৎসীমার ওপরে, নাটুয়াপাড়া বাঁধে ভাঙন

১৫ জুলাই ২০১৯, ১৮:৪৭

শরীফুল ইসলাম ইন্না, সিরাজগঞ্জ
যমুনা নদীর পানি বাড়ায় সিরাজগঞ্জের অনেক নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। ছবি : এনটিভি

উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে সিরাজগঞ্জে যমুনা নদীর পানি বৃদ্ধি অব্যাহত রয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় সিরাজগঞ্জের হার্ড পয়েন্টে যমুনা নদীর পানি ৩২ সেন্টিমিটার বৃদ্ধি পেয়ে বিপৎসীমার ১৬ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে বয়ে যাচ্ছে। কাজিপুর উপজেলার নাটুয়াপাড়া রক্ষা বাঁধে ধ্স নেমেছে। বাঁধের অনেক অংশ যমুনা নদীতে বিলীন হয়ে গেছে।

পানি বৃদ্ধির ফলে সদর, বেলকুচি, চৌহালি, কাজিপুর ও শাহজাদপুর উপজেলার যমুনার চরাঞ্চলের নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। এ ছাড়া সিরাজগঞ্জ সদরের গোনারগাতি, রানীগ্রাম, পুঠিয়াবাড়ি, খোকশাবাড়ি ও চরমালশাপাড়া এলাকাসহ আরো কয়েকটি গ্রাম ও বাঁধের নিম্নাংশের ঘরবাড়িতে বন্যার পানি প্রবেশ করেছে।

নদীতে ঘূর্ণাবর্তের সৃষ্টি হওয়ায় সদর, কাজিপুর, চৌহালী, শাহজাদপুর এলাকা ব্যাপকহারে নদীভাঙনের মুখে পড়েছে। এভাবে পানি বাড়তে থাকলে ভয়াবহ বন্যা হওয়ার আশঙ্কা করছে সিরাজগঞ্জের কয়েকটি উপজেলার বাসিন্দরা।

সিরাজগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাউবো) নির্বাহী প্রকৌশলী শফিকুল ইসলাম জানান, সিরাজগঞ্জে ৮০ কিলোমিটার নদী পথ রয়েছে। এই নদী পথের ডান তীরে বাঁধ থাকায় কোনো সমস্যা হবে না। এখন পর্যন্ত আমাদের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। কোনো সমস্যা নাই। পানি উন্নয়ন বোর্ড প্রস্তুত রয়েছে।

বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্রের সকাল ৯টার তথ্য অনুযায়ী, সিরাজগঞ্জ হার্ড পয়েন্টে যমুনা নদীর পানি গত ২৪ ঘণ্টায় ৩২ সেন্টিমিটার বেড়ে বিপৎসীমার ১৬ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে বয়ে যাচ্ছে। অন্যদিকে কাজিপুর পয়েন্টে ৩৬ সেন্টিমিটার বেড়ে বিপৎসীমার ৪৫ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে যমুনা নদীর পানি প্রবাহিত হচ্ছে।

বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্র জানিয়েছে, আগামী ২৪ ঘণ্টায় সিরাজগঞ্জে বন্যা পরিস্থিতির অবনতি হতে পারে।

Advertisement