Beta

টেকনাফে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মাদক ও অস্ত্র মামলার আসামি নিহত

১৪ জুলাই ২০১৯, ১৮:১৫

কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলায় পুলিশের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে মাদক ও অস্ত্র মামলার আসামি মুফিদ আলম (৩৯) নিহত হয়েছেন। গতকাল শনিবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে উপজেলার নয়াপাড়া বালিকা মাদ্রাসার পেছনে নাফ নদের পাশে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনাস্থল থেকে দুটি এলজি, শটগানের ১০টি তাজা কার্তুজ ও পাঁচ হাজার ইয়াবা উদ্ধার করার দাবি করেছে পুলিশ।

নিহত মুফিদ আলম টেকনাফের নয়াপাড়া এলাকার মৃত নজির আহাম্মদের ছেলে।

টেকনাফ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) প্রদীপ কুমার দাশ দাবি করেন, শনিবার সাড়ে ৮টার দিকে মুফিদ আলমকে গ্রেপ্তার করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে মুফিদ জানান, ইয়াবার একটি বড় চালান নয়াপাড়া বালিকা মাদ্রাসার পেছনে নাফ নদের পাশে মজুদ আছে। মুফিদের তথ্যমতে পুলিশ ওই এলাকায় অভিযান চালায়। এ সময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে মুফিদের সহযোগী মাদক ব্যবসায়ীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। পুলিশও আত্মরক্ষার্থে ৩৮টি গুলি ছোড়ে। একপর্যায়ে মাদক ব্যবসায়ীরা পালিয়ে যায়। এ সময় পুলিশের দুই সদস্য আহত হন। গ্রেপ্তার মুফিদ আলমকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করা হয়।

পরে মুফিদকে টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাঁকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে উন্নত চিকিৎসার জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালে পাঠান। পরে সদর হাসপাতালে কর্তব্যরত চিকিৎসক মুফিদকে মৃত ঘোষণা করেন।

ওসি প্রদীপ কুমারের ভাষ্যমতে, নিহত মুফিদ আলমের নামে কক্সবাজরের বিভিন্ন থানায় অস্ত্র ও মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা রয়েছে।

Advertisement