Beta

গোপালগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় তিনজন নিহত

১২ জুলাই ২০১৯, ২০:৩১

গোপালগঞ্জে বৃহস্পতিবার ও শুক্রবার পৃথক দুটি সড়ক দুর্ঘটনায় তিনজনের প্রাণাহানি ঘটে। ছবি : এনটিভি

গোপালগঞ্জে মাইক্রোবাস ও মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে মোটরসাইকেলের দুই আরোহী এবং ট্রাকের ধাক্কায় এক ভ্যানচালক নিহত হয়েছেন।

আজ শুক্রবার বেলা ১১টার দিকে জেলার কাশিয়ানী উপজেলার চাপ্তা বটতলা নামক স্থানে ঢাকা-খুলনা মহাসড়কে মাইক্রোবাস ও মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষের এ দুর্ঘটনাটি ঘটে। নিহত ব্যক্তিরা হলেন নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার শালনগর গ্রামের সাদ্দাম হোসেন (৩০) ও মনির মিয়া (৩২)।

কাশিয়ানী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আজিজুর রহমান জানান, মোটরসাইকেলে করে গোপালগঞ্জ থেকে নড়াইলের লোহাগড়ায় যাচ্ছিলেন সাদ্দাম হোসেন ও মনির মিয়া। তাদের মোটরসাইকেল কাশিয়ানী উপজেলার চাপ্তা বটতলায় পৌঁছালে বিপরীত দিক থেকে আসা গোপালগঞ্জগামী একটি মাইক্রোবাসের সঙ্গে তাদের মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষ ঘটে। ঘটনাস্থলেই মোটরসাইকেলটি দুমড়ে-মুচড়ে দুই আরোহী মারাত্মক আহত হন। পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে সংকটজনক অবস্থায় কাশিয়ানী হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন।

উদ্ধারকাজ করার জন্য মহাসড়কের ওই এলাকায় যানবাহন চলাচল কিছু সময় বন্ধ ছিল। উদ্ধার কাজ শেষে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়ে আসে।

এর আগে গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে গোপালগঞ্জ-কোটালীপাড়া সড়কের গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার কাঠি নামক স্থানে ট্রাকের ধাক্কায় এক ভ্যানচালক নিহত হন। গোপালগঞ্জ থানা পুলিশ ট্রাকচালকসহ দুজনকে আটক করেছে এবং ট্রাকটি জব্দ করেছে। নিহত ভ্যানচালক মাবুদের বাড়ি জেলার কাঠি গ্রামে।

গোপালগঞ্জ সদর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আব্দুল বারেক জানান, ভ্যানচালক মাবুদ কাঠি বাজারের একটি চায়ের দোকানের সামনে ভ্যান থামিয়ে ভ্যানে বসে ছিলেন। একটি ট্রাক ভ্যানটিকে ধাক্কা দিলে ওই বৃদ্ধ ভ্যান থেকে ছিটকে পড়ে মারাত্মকভাবে আহত হন। সংকটজনক অবস্থায় তাঁকে গোপালগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হলে দুপুর ১২টার দিকে তিনি সেখানে মারা যান।

বিষয়টি জানতে পেরে গোপালগঞ্জ শহরের বেদগ্রামের যুবক ওহিদুল সরদার, পাপ্পু ও শান্ত ট্রাকটি আটক করে এর চালক ও সহকারীকে পাশের একটি বাড়িতে নিয়ে তাদের কাছ থেকে ১৬ হাজার টাকা আদায় করে নেয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে ট্রাকসহ যুবক ওহিদুল সরদার ও ট্রাকচালক ইমাম হোসেন মুন্সিকে আটক করে। এ সময় পাপ্পু ও শান্ত পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়।

ট্রাকটি কোটালীপাড়ায় পণ্য খালাস করে যশোর যাচ্ছিল বলে জানান ওই পুলিশ কর্মকর্তা।

Advertisement