Beta

কিশোরগঞ্জে যুবলীগকর্মী হত্যার বিচারের দাবিতে মানববন্ধন

০৭ জুলাই ২০১৯, ২৩:২৩

কিশোরগঞ্জে যুবলীগকর্মী ইউসুফ মনি নিহতের ঘটনায় মূল অভিযুক্তদের গ্রেপ্তার ও বিচারের দাবিতে রোববার জেলা শহরে মানববন্ধন করেন স্থানীয়রা। ছবি : এনটিভি

হত্যাকাণ্ডের ছয় মাস পেরিয়ে গেলেও কিশোরগঞ্জের যুবলীগকর্মী ইউসুফ মনি নিহতের ঘটনায় মূল অভিযুক্তরা ধরাছোঁয়ার বাইরেই রয়ে গেছে। এর প্রতিবাদে আজ রোববার জেলা শহরের আখড়াবাজার এলাকায় মানববন্ধন করে স্থানীয়রা। ঘণ্টাব্যাপী মানববন্ধনে জনপ্রতিনিধি, বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের প্রতিনিধি, শিক্ষক ও শিক্ষার্থীসহ এলাকার স্থানীয় লোকজন অংশ নেয়।

কর্মসূচি চলাকালে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন  কিশোরগঞ্জ সম্মিলিত নাগরিক সমাজের আহ্বায়ক এনায়েত করিম অমি, আওয়ামী লীগনেতা আবু সিদ্দিক, নিহত যুবলীগকর্মী ইউসুফ মনির ছোট ভাই পৌর কাউন্সিলর ইয়াকুব সুমন প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, ‘মনি হত্যা মামলায় পুলিশ বেশ কয়েকজনকে গ্রেপ্তার করলেও মূল হোতা ও এদের ইন্ধনদাতারা এখন পর্যন্ত ধরাছোঁয়ার বাইরে রয়ে গেছে। এদের দ্রুত আটক করে দৃষ্টান্তমূলক সাজা নিশ্চিত করতে হবে।’

জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে গত ২৫ জানুয়ারি রাত ৯টার দিকে শহরের ঈশাখাঁ রোডের রথখলা এলাকায় প্রকাশ্যে একদল সন্ত্রাসী যুবলীগকর্মী এ কে এম ইউসুফ মনিকে (৪৮) কুপিয়ে হত্যা করে। এ সময় তার ছোট ভাই কিশোরগঞ্জ পৌরসভার ৬ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ইয়াকুব সুমন (৪৫) গুরুতরভাবে জখম হন।

ঘটনার দুদিন পর গত ২৭ জানুয়ারি রাতে নিহত মনির স্ত্রী আবিদা আক্তার শিখা বাদী হয়ে ১২ জনের নাম উল্লেখ ও ৪০ থেকে ৫০ জনকে অজ্ঞাত আসামি করে কিশোরগঞ্জ মডেল থানায় একটি মামলা করেন। পুলিশ এ পর্যন্ত এজাহারভুক্ত দুই আসামিসহ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে ১১ জনকে গ্রেপ্তার করেছে। এদের মধ্যে দুজন আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।

নিহত মনির ছোট ভাই কিশোরগঞ্জ পৌরসভার ৬ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ইয়াকুব সুমন জানান, হত্যাকাণ্ডে জড়িত মূলহোতা নিয়াজ, রাকিব, নয়ন ও রাজিবসহ কুখ্যাত সন্ত্রাসীরা এখনো ধরাছোঁয়ার বাইরে রয়ে গেছে।

Advertisement