Beta

গোপালগঞ্জে বাসচাপায় মা-ছেলে নিহত

২৯ জুন ২০১৯, ১১:৪৪ | আপডেট: ২৯ জুন ২০১৯, ১১:৫৮

ইউএনবি
গোপালগঞ্জের মুকসুদপুর উপজেলার গ্যাড়াখোলা এলাকায় আজ শনিবার সকালে বাসের চাপায় মা-ছেলের মৃত্যুর পর স্বজনদের আহাজারি। ছবি : এনটিভি

গোপালগঞ্জের মুকসুদপুর উপজেলার গ্যাড়াখোলা এলাকায় ঢাকা-খুলনা মহাসড়কে আজ শনিবার সকাল সোয়া ৮টার দিকে বাসের চাপায় মা ও ছেলে নিহত হয়েছেন।

এ ঘটনার পরপর স্থানীয় বিক্ষুব্ধ জনতা সড়কে গাছ ফেলে ও তাতে আগুন জ্বালিয়ে সড়ক অবরোধ শুরু করে। এ সময় সড়কের দুই পাশে বেশ কিছু যানবাহন আটকা পড়ে। অবরোধের সময় ১০ থেকে ১২টি যানবাহন ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে। এতে গাড়ির জানালার কাঁচ ভেঙে আহম্মদ (৮) নামের এক শিশু বাসযাত্রী আহত হয়। 

মুকসুদপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) তসলিমা আলী ও মুকসুদপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোস্তফা কামাল পাশা ওই স্থানে  গতিরোধক তৈরির আশ্বাস দিলে আন্দোলনকারীরা সকাল সোয়া ১০টার দিকে অবরোধ প্রত্যাহার করে নেয়। তারপর ওই সড়কে যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক হয়ে আসে।

গোপালগঞ্জের মুকসুদপুর উপজেলার গ্যাড়াখোলা এলাকায় আজ শনিবার সকালে বাসের চাপায় মা-ছেলের মৃত্যুর পর সড়ক অবরোধ। ছবি : এনটিভি

নিহত দুজন হলেন মুকসুদপুর উপজেলার ঢাকপাড়া গ্রামের এরশাদ খানের স্ত্রী শাওন বেগম (২৭) ও তাঁদের ছেলে মুকসুদপুর কেজি স্কুলের প্রথম শ্রেণির ছাত্র সাকিব খান (৭)। সাকিবের বাবা এরশাদ খান গ্যাড়াখোলা সুরূপী সালিনাক্সা উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক।

মুকসুদপুর থানার ওসি মোস্তফা কামাল পাশা জানান, স্কুলে এগিয়ে  দিতে মা ছেলেকে নিয়ে বাড়ি থেকে বের হন। গ্যাড়াখোলায় ঢাকা-খুলনা মহাসড়ক পার হওয়ার সময় ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা খুলনাগামী সেন্টমার্টিন পরিবহনের একটি কোচ তাদের চাপা দিয়ে দ্রুত পালিয়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই তারা মারা যান।

Advertisement