Beta

ভৈরবে দুস্থ প্রতিবন্ধীদের মধ্যে অর্থ মগ সাবান বিতরণ

১৩ জুন ২০১৯, ১৯:৫৬

কিশোরগঞ্জের ভৈরবে বৃহস্পতিবার তিন শতাধিক দুস্থ প্রতিবন্ধীর মধ্যে অর্থ ও কিছু সামগ্রী বিতরণ করা হয়। ছবি : এনটিভি

কিশোরগঞ্জের ভৈরবে তিন শতাধিক দুস্থ প্রতিবন্ধীর মধ্যে অর্থ ও কিছু সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলার কালিকাপ্রসাদ ইউনিয়নের কালিকাপ্রসাদ গ্রামের মিয়া বাড়ির মাঠে স্থানীয় দুস্থ প্রতিবন্ধী কল্যাণ ফাউন্ডেশন এই অর্থ ও সামগ্রীগুলো বিতরণ করে।

ভৈরব উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ মো. সায়দুল্লাহ মিয়া প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে প্রত্যেক প্রতিবন্ধীর হাতে ৫০০ টাকা, একটি করে পানি পান করার মগ ও গোসলের সাবান তুলে দেন।

এ সময় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম সেন্টু, আনোয়ারা জেনারেল হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডা. আজিজুল হক স্বপন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক উপকমিটির সদস্য অ্যাডভোকেট এমরান মিয়া, উপজেলা আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডা. মিজানুর রহমান কবির, বাংলা মিডিয়া লিমিটেডের পরিচালক সাংবাদিক মোজাব্বীর হাসান ও কালিকাপ্রসাদ ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান মো. ফারুক মিয়া।

দুস্থ প্রতিবন্ধী কল্যাণ ফাউন্ডেশনের সভাপতি হাজি মো. শাহজাহান মিয়ার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা ও নির্বাহী পরিচালক মাসুদ রানা। অন্যদের মধ্যে আলোচনায় অংশ নেন সংগঠনের উপনির্বাহী সম্পাদক হাসান মো. শামীম, ইউপি সদস্য হাজি মো. রইছ মিয়া, ইউপি সদস্য ফিরোজা বেগম, ইউনিয়ন জাতীয় পার্টির সভাপতি মদ্রিস খান কামাল প্রমুখ।

আলোচনা সভায় বক্তারা সমাজের দুস্থ প্রতিবন্ধীদের কল্যাণে সবাইকে স্বপ্রণোদিত হয়ে এগিয়ে এসে কাজ করার আহ্বান জানান। অনুষ্ঠানে সভাপতি হাজি মো. শাহজাহান এলাকায় একটি প্রতিবন্ধী পুনর্বাসন কেন্দ্র গড়ে তুলতে নিজের তিন শতাংশ ভূমি লিখে দেওয়ার ঘোষণা দেন।

প্রধান অতিথি আলহাজ মো. সায়দুল্লাহ মিয়া হাজি শাহজাহান মিয়ার দান করা ভূমিতে স্থানীয় সংসদ সদস্য নাজমুল হাসান পাপনের সঙ্গে পরামর্শ করে প্রতিবন্ধী পুনর্বাসন কেন্দ্র গড়ে তোলার উদ্যোগ গ্রহণের কথা জানান। এ ছাড়া উপজেলা পরিষদ থেকে প্রতিবন্ধীদের জন্য কিছু হুইল চেয়ার বরাদ্দেরও ঘোষণা দেন তিনি।

এ ছাড়াও অনুষ্ঠানের শুরুতে বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ মো. সায়দুল্লাহ মিয়া ভৈরব উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ায় দুস্থ প্রতিবন্ধী কল্যাণ ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে তাঁকে সংবর্ধনা দেওয়া হয়। এ সময় সংগঠনের কর্মকর্তা তাঁকে ফুলেল শুভেচ্ছসহ অভিনন্দন জানান এবং সংগঠনের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক তাঁর হাতে ক্রেস্ট তুলে দেন।

Advertisement