Beta

জানাজা শেষে ফেরার পথে লাশ হলেন চাচা-ভাতিজা

১২ জুন ২০১৯, ১৬:১৬

পাবনা সদর উপজেলায় বুধবার ইজিবাইক-মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে ওয়ালিদ হোসেন ও প্রান্ত হোসেন নামের দুই মোটরসাইকেল আরোহী নিহত হন। ছবি : এনটিভি

পাবনা সদর উপজেলায় আত্মীয়র জানাজা ও দাফন শেষে মোটরসাইকেলে করে ফেরার পথে ইজিবাইকের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষে ওয়ালিদ হোসেন (২২) ও প্রান্ত হোসেন (১৬) নামের দুই ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। নিহতরা সম্পর্কে চাচা-ভাতিজা।

আজ বুধবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে শহরের চাঁদমারী সার্কিট হাউস এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত ওয়ালিদ সদর উপজেলার বলরামপুর গ্রামের আমিন উদ্দিন প্রামাণিক ও প্রান্ত শফিক প্রামাণিকের ছেলে। ওয়ালিদ একজন কোরআনের হাফেজ।

পুলিশ জানায়, আজ সকালে সদর কবরস্থানে এক আত্মীয়র জানাজা শেষে মোটরসাইকেলে করে পাবনার বিসিক শিল্পনগরীতে ফিরছিলেন চাচা ওয়ালিদ ও ভাতিজা প্রান্ত। পথে সার্কিট হাউজ সড়কে পারাপাররত এক নারীকে বাঁচাতে গিয়ে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি ইজিবাইকের সঙ্গে মোটরসাইকেলটির সংঘর্ষ হয়।

পরে স্থানীয়রা দ্রুত গুরুতর আহত চাচা-ভাতিজাকে উদ্ধার করে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাঁদের মৃত ঘোষণা করেন।

পাবনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ওবাইদুল হক জানান, সকালে এক আত্মীয়র জানাজা ও দাফন শেষ করে দোকানের ভূষিমাল আনার জন্য ওয়ালিদ ও তাঁর ভাতিজা প্রান্ত মোটরসাইকেলযোগে পাবনার শিল্পনগরী এলাকার (বিসিক) দিকে যাচ্ছিলেন। শহরের চাঁদমারি মোড়ে পৌঁছালে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি ব্যাটারিচালিত ইজিবাইকের সঙ্গে তাঁদের মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে দ্রুতগামী ইজিবাইকের নিচে চাপা পড়ে ঘটনাস্থলেই মারা যান ওয়ালিদ ও প্রান্ত।

পরে খবর পেয়ে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে পাবনা জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠায়। এ ঘটনায় পাবনা সদর থানায় একটি মামলা হয়েছে বলে জানান ওসি। পুলিশ এখনো পর্যন্ত দুর্ঘটনায় সংশ্লিষ্ট ইজিবাইকটি আটক করতে পারেনি বলে জানান তিনি।

Advertisement