Beta

নয়াপল্টনে বিএনপির কার্যালয়ে ছাত্রদলের তালা

১১ জুন ২০১৯, ১৬:০৮

নিজস্ব সংবাদদাতা
জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের বিগত কমিটির নেতাকর্মীরা আজ মঙ্গলবার রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে তালা ঝুলিয়ে বিক্ষোভ করেন। ছবি : ফোকাস বাংলা

বয়সসীমা না বেঁধে ধারাবাহিক কমিটি গঠনের দাবিতে আন্দোলন শুরু করেছেন জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের বিগত কমিটির নেতাকর্মীরা। আজ মঙ্গলবার বেলা সোয়া ১১টার দিকে রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের মূল দরজায় তালা ঝুলিয়ে দেন তাঁরা।

এর আগে সকাল ১০টা থেকে ছাত্রদলের সাবেক নেতাদের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে জড়ো হতে দেখা যায়। বেলা সোয়া ১১টার দিকে কার্যালয়ের মূল দরজায় তালা ঝুলিয়ে দেন ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা। পরে ১১টা ২০ মিনিটে কার্যালয়ের সামনে আসেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান বরকত উল্লাহ বুলু, সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুর হক মিলন, প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দীন চৌধুরী এ্যানী এবং প্রশিক্ষণ বিষয়ক সম্পাদক এ বি এম মোশারফ হোসেন।

বিএনপির এই চার নেতা কার্যালয়ে প্রবেশ করতে চাইলে তাঁদের বাধা দেন সাবেক ছাত্রনেতারা। এ সময় তাঁদের সঙ্গে কমিটির বিষয়ে তর্ক-বিতর্ক হয়।

ছাত্রনেতারা বিএনপির চার নেতাকে বলেন, বয়সসীমা বেঁধে না দিয়ে ছাত্রদলের ধারাবাহিক কমিটি দিতে হবে। আর বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী একাই দুটি পদ নিয়ে অফিসকেই বাড়িঘর বানিয়েছেন। রিজভীকে এখান থেকে বের করে নিয়ে যান।

এ সময় শহীদ উদ্দীন চৌধুরী এ্যানী কার্যালয়ের ভেতরে গিয়ে কথা বলার অনুরোধ করেন। তবে ছাত্রনেতারা বলেন, ‘ভেতরে নয়, এখানেই কথা বলুন।’

পরে বরকত উল্লাহ বুলু কার্যালয়ের সামনে থেকে চলে যান। আর মিলন, এ্যানী ও মোশাররফ কার্যালয়ের পাশে বইয়ের দোকানে বসতে চাইলে দোকানের শাটার নামিয়ে দেওয়া হয়। এরপর এ্যানী ছাত্রনেতাদের ধমক দিলে এক নেতা তাঁকে ধাক্কা দেন।

ছাত্রনেতাদের সঙ্গে তর্ক-বিতর্ক শেষে ফজলুল হক মিলন সাংবাদিকদের বলেন, ‘কমিটির বিষয়ে সিদ্ধান্ত দল থেকে দেওয়া হয়েছে। আর আমরা সবাই বসে এটা কার্যকর করব। তবে দুঃখ ও অভিমান থাকতেই পারে। এটা অস্বাভাবিক কোনো ঘটনা না। আমরা তাদের দুঃখ ও বেদনা শুনব। সেটা আমরা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে বলব।’

গত ৩ জুন বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে ছাত্রদলের মেয়াদোত্তীর্ণ কেন্দ্রীয় কমিটি বাতিল করা হয়। এতে বলা হয়, আগামী ৪৫ দিনের মধ্যে কাউন্সিলরদের মতামতের ভিত্তিতে সংগঠনটির নতুন কেন্দ্রীয় সংসদ গঠন করা হবে।

ছাত্রদলের অনুষ্ঠিতব্য কাউন্সিলে প্রার্থী হওয়ার যোগ্যতার বিষয়ে বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, ছাত্রদলের প্রাথমিক সদস্য হতে হবে। অবশ্যই বাংলাদেশে অবস্থিত কোনো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছাত্র হতে হবে। কেবল ২০০০ সাল থেকে পরবর্তী সময়ে যেকোনো বছরে এসএসসি অথবা সমমানের পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে হবে।

সংগঠনটির সাবেক নেতাকর্মীদের অভিযোগ, ছাত্রদলের কমিটি গঠনে বয়সের কোনো সীমারেখা নির্ধারণ না করে স্বল্প মেয়াদে আগামী ১ জানুয়ারি পর্যন্ত একটি কমিটি গঠন এবং পরের কমিটিকেও এক বছরের স্বল্প মেয়াদে গঠন করে ছাত্রদলের নেতৃত্বের জট কমানোর দাবি করেছেন। কিন্তু বিএনপির শীর্ষস্থানীয় নেতারা তাঁদের সেই দাবি অগ্রাহ্য করে নানান শর্ত জুড়ে দিয়েছেন। সিন্ডিকেটের পছন্দের নেতাকে সামনে আনার জন্য তাঁরা এ ধরনের শর্ত দিয়েছেন বলেও অভিযোগ তাঁদের।

Advertisement