Beta

পকেটে ৮০ গ্রাম হেরোইন রাখায় যাবজ্জীবন

২৯ মে ২০১৯, ১৯:২৬

আদালত প্রতিবেদক

৮০ গ্রাম হেরোইন রাখার দায়ে সোহেল নামের এক ব্যক্তিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত। আজ বুধবার ঢাকার বিশেষ জজ আদালত ৬-এর বিচারক ড. শেখ গোলাম মাহবুব এ রায় ঘোষণা করেন। বিচারক রায়ের পাশাপাশি ১০ হাজার টাকা জরিমানা এবং অনাদায়ে আরো তিন মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড ভোগের নির্দেশ দিয়েছেন।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী মঞ্জুর মাওলা চৌধুরী জানান, রায় ঘোষণা শেষে আসামিকে সাজা পরোয়ানাসহ কারাগারে পাঠানো হয়।

আইনজীবী বলেন, আইনে বলা আছে, পাঁচ গ্রাম পর্যন্ত হেরোইন পাওয়া গেলে এক থেকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড ও অর্থদণ্ড দেওয়া যাবে। এই মাদকের পরিমাণ পাঁচ থেকে ২৫ গ্রামের মধ্যে হলে পাঁচ থেকে ১০ বছরের কারাদণ্ড ও অর্থদণ্ড এবং মাদকের পরিমাণ ২৫ গ্রাম বা তার বেশি হলে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড বা মৃত্যুদণ্ড ও অর্থদণ্ড দেওয়া যাবে।

দণ্ডাদেশ পাওয়া সোহেলের বাড়ি পিরোজপুরের কাউখালী উপজেলার কাউখালী দক্ষিণ বাজারে। রায় শেষে আসামি আদালতের কাঁঠগড়ায় দাঁড়িয়ে ছিলেন। তাঁকে খুব বিমর্ষ অবস্থায় দেখা গেছে। তবে পরিবারের কোনো স্বজনকে রায়ের সময় আদালতে দেখা যায়নি।

আসামির আইনজীবী শাহনাজ সাথী বলেন, ‘রায়ে সন্তুষ্ট নই। এ রায়ের বিরুদ্ধে উচ্চ আদালতে আপিল করা হবে।’ উচ্চ আদালতে আপিল করলে আসামি খালাস পাবেন বলে দাবি করেন তিনি।  

নথি থেকে জানা যায়, ২০১৭ সালের ২৮ জুন রাজধানীর কদমতলী থানাধীন এলাকায় সোহেলের দেহ তল্লাশি করে প্যান্টের ডান পকেট থেকে পলিথিনে প্যাঁচানো অবস্থায় ৮০ গ্রাম হেরোইন উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় কদমতলী থানার উপপরিদর্শক (এসআই) প্রদীপ কুমার কুণ্ডু মামলা করেন। পরে ২০১৭ সালের ৩১ জুলাই এসআই বিনয় কুমার রায় আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। এরপর ২০১৭ সালের ১৬ নভেম্বর এ মামলার বিচার শুরুর আদেশ দেন আদালত।

রায়ের আগে আদালত আট স্বাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ করেন।

Advertisement