Beta

সরকারকে বিদায় করতে হলে ধৈর্য ধরতে হবে : মঈন খান

২৮ মে ২০১৯, ২০:৪৭

নিজস্ব সংবাদদাতা
বিএন‌পির স্থায়ী ক‌মি‌টির সদস্য ড. আবদুল মঈন খান। পুরোনো ছবি : এনটিভি

বিএন‌পির স্থায়ী ক‌মি‌টির সদস্য ড. আবদুল মঈন খান বলেছেন, বর্তমান সরকারকে শর্টকাটে বিদায় করা যাবে না। এ সরকারকে বিদায় করতে হলে ধৈর্য ধরতে হবে।

মঙ্গলবার জাতীয় প্রেসক্লাবের জহুর হোসেন চৌধুরী হলে এক আলোচনা সভায় মঈন খান এসব কথা বলেন। শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ৩৮তম শাহাদতবার্ষিকী উপলক্ষে অ্যাসোসিয়েশন অব ইঞ্জিনিয়ার্স বাংলাদেশ (অ্যাব) ওই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

নিজ দলের আত্মসমালোচনা করে ড. মঈন খান বলেছেন, আমাদের নিজেদের আত্মসমালোচনা করতে শিখতে হবে। দলের কর্মকৌশলে যে ভুলগুলো আছে সেগুলো শুধরাতে হবে। যে পর্যন্ত আমরা আমাদের এই ভুলগুলো শুধরাতে না পারছি সে পর্যন্ত আন্দোলন করে বিজয়ী হওয়া যাবে না। ভুল শুধরে আন্দোলনে নামলে বিজয় হবেই।

ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সমালোচনা করে বিএন‌পির স্থায়ী ক‌মি‌টির এই সদস্য বলেন, আওয়ামী লীগ নিজেদের স্বাধীনতার পক্ষের শক্তি দাবি করে। কিন্তু ১৯৭১ সালে শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান স্বাধীনতার ঘোষণা না করলে আজকের আওয়ামী লীগ আস্তাকুঁড়ে মরত। এ দেশের জনগণও অসহ্য নির্যাতনের শিকার হতো।

মঈন খান বলেন, আমাদের দলকে সুসংগঠিত করতে হবে। আন্দোলন করার প্রস্তুতি নিতে হবে। তারপর আন্দোলনে গিয়ে সরকারকে বিদায় করতে হবে।

বিএনপির এই নীতিনির্ধারক বলেন, আন্দোলন করার আগে জনগণকে সঙ্গে নিয়ে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে এবং এই অবৈধ সরকারকে একঘরে করতে হবে। তাহলে এ সরকারকে বিদায় করা যাবে, দেশে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠিত হবে।

অ্যাসোসিয়েশন অব ইঞ্জিনিয়ার্স বাংলাদেশের সহসভাপতি প্রকৌশলী মোহাম্মদ মহসীন আলীর সভাপতিত্বে এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ডা. এ জেড এম জাহিদ হোসেন, বিএফইউজের সভাপতি রুহুল আমিন গাজী, সাংস্কৃতিক জোটের মহাসচিব রফিকুল ইসলাম প্রমুখ।

Advertisement