Beta

‘প্রয়োজনে ঐক্য গড়ে ওঠে, ঐক্য গড়ে দেওয়া হয় না’

১৭ মে ২০১৯, ২২:০৭

নিজস্ব সংবাদদাতা

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান বলেছেন, ‘আমরা আন্দোলন করে নব্বইয়ে স্বৈরাচারী এরশাদ সরকারের পতন ঘটিয়েছি। এবারো আন্দোলনের মাধ্যমে এ সরকারের পতন ঘটাতে হবে।’

নজরুল ইসলাম খান আরো বলেন, ‘প্রয়োজনে ঐক্য গড়ে ওঠে, ঐক্য গড়ে দেওয়া হয় না। ছাত্র সংগঠনগুলো চায়নি, কিন্তু কোটা সংস্কার আন্দোলনে সাধারণ ছাত্ররা ঐক্য গড়ে তুলেছে। আমরা চাইনি, নিরাপদ সড়কের দাবিতে আমাদের সন্তানেরা রাজপথে সারাদেশে এক হয়ে রাস্তায় নেমেছে। প্রয়োজনের দাবিতে মানুষের ঐক্য গড়ে ওঠে এবং মানুষ রাস্তায় নামে।’

আজ শুক্রবার রাজধানীতে ছাত্র মিশনের আলোচনা ও ইফতার মাহফিলে এসব কথা বলেন নজরুল ইসলাম খান।

তিনি বলেন, ‘জনগণ এই সরকারকে পছন্দ করে না। এটা তারা বুঝতে পেরে জনগণের প্রতি আস্থা না রেখে ২৯ ডিসেম্বর রাতে পুলিশ দিয়ে ভোট ডাকাতি করে নিয়েছে। এরকম কলঙ্কজনক নির্বাচন পৃথিবীর ইতিহাসে একটিও নেই।’

বিএনপির এই জ্যেষ্ঠ নেতা বলেন, ‘আগে শুনেছি পাটের দাম না পেলে পাটে আগুন দেওয়া হতো। কিন্তু বাংলাদেশের ইতিহাসে এবারই প্রথম ধানে দাম না পাওয়ায় কৃষক ধান ক্ষেতে আগুন দিয়েছেন।’

আলোচনা ও ইফতারে বাংলাদেশ লেবার পার্টির চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান ইরান বলেন, ‘এই জালিম সরকারের পতন ঘটাতে হলে আমাদের নব্বইয়ে ফিরে যেতে হবে। রাজপথে কঠোর ছাত্র আন্দোলন ও যুব আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে। যেভাবে নব্বইয়ে ছাত্র আন্দোলনের মাধ্যমে স্বৈরশাসকের পতন ঘটানো হয়েছে।’

এ সময় সর্বদলীয় ছাত্র ঐক্য গড়ে তুলে রাজপথে কঠোর আন্দোলনে নামার আহ্বান জানান মোস্তাফিজুর রহমান ইরান।

ছাত্র মিশনের কেন্দ্রীয় সভাপতি সালমান খান বাদসার সভাপতিত্বে আলোচনা ও ইফতারে আরো উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ লেবার পার্টির সাংগঠনিক সম্পাদক হুমায়ুন কবির, ছাত্র বিষয়ক সম্পাদক মেসবাহউল ইসলাম সজীব, ছাত্র মজলিসের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক মনসুরুল আলম, ছাত্র মিশনের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মো. মিলন এবং বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবিরের কেন্দ্রীয় দাওয়া সম্পাদক রাশেদুল ইসলাম প্রমুখ।

Advertisement