Beta

ময়মনসিংহে যুবলীগ নেতা হত্যা মামলায় দুজনের স্বীকারোক্তি

১৬ মে ২০১৯, ০০:০৮

ময়মনসিংহ জেলা যুবলীগের সদস্য রেজাউল করিম রাসেল হত্যায় গ্রেপ্তার দুজন স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। ছবি : এনটিভি

ময়মনসিংহ জেলা যুবলীগের সদস্য রেজাউল করিম রাসেল হত্যায় দুজন স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। এঁরা হলেন মোবারক ও আজিজুল। বুধবার বিকেলে তারা আদালতে জবানবন্দি দেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) ওসি মো. শাহ কামান আকন্দ।

এর আগে রাসেলের বাবা জালাল উদ্দিন বাদী হয়ে একটি হত্যা মামলা করেন। মামলায় আসামি করা হয় শহর ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি আব্দুল্লাহ আল মামুন আরিফ,  তার সহযোগী রানা, ডেভিড রনি, ও বাদলসহ চারজনকে। আরো অজ্ঞাত ৮/১০ জনকে আসামি করা হয়েছে।

মামলার এজাহারে জালাল উদ্দিন দাবি করেন, এক বছর আগে তার নাতনি শামসীয়া জামান বেনজীরকে আরিফ জোর করে উঠিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করলে রাসেল তাতে বাধা দেয়। এ ছাড়া এক বছর ছয় মাস আগে রাসেলের সাথে সাবরেজিস্টার অফিসের লাভজনক বিষয় ও রাজনীতি নিয়েও আরিফের সাথে বিবাদ তৈরি হয়। বিষয়টি মিটমাট হলেও আরিফ মনে মনে রাসেলকে পথের কাঁটা মনে করত এবং মাঝে মাঝেই রাসেলকে হত্যার হুমকি দিয়ে আসছিল। এর ধারাবাহিকতায় ১৩ মে রাত আনুমানিক ২টার পর মৃত্যুঞ্জয় স্কুল রোডের আঞ্চলিক টাউন ডিফেন্স পার্টির অফিসে ক্যারম খেলা অবস্থায় রাসেলকে আরিফের নির্দেশে অজ্ঞাত স্থানে ডেকে নেয় তার দুই সহযোগী। পরে মৃত্যঞ্জয় স্কুলের রোডের গলিতে ছেলে রাসেলের রক্তাক্ত লাশের খবর পান তিনি।

ছেলের লাশ দাফন ও ময়নাতদন্ত শেষে তিনি থানায় হাজির হয়ে মামলাটি দায়ের করেন। এ সময় তার সাথে ছিলেন মেয়ে জেসমিন আরা পলি।

Advertisement