Beta

কল্যাণপুরের জঙ্গি আস্তানার মামলা বিচারের জন্য বদলি

০৯ মে ২০১৯, ১৭:৫৪

আদালত প্রতিবেদক

রাজধানীর কল্যাণপুরের জঙ্গি আস্তানার ঘটনায় দায়ের করা মামলা বিচারের জন্য সন্ত্রাসবিরোধী ট্রাইব্যুনালে বদলির আদেশ দিয়েছেন আদালত। আজ বৃহস্পতিবার ঢাকা মহানগর হাকিম দেবব্রত বিশ্বাস এ আদেশ দেন।

ঢাকার অপরাধ, তথ্য ও প্রসিকিউশন বিভাগের উপকমিশনার আনিসুর রহমান এনটিভি অনলাইনকে বলেন, আজ এ মামলার অভিযোগপত্র আদালতে উপস্থাপন করা হলে বিচারক  অভিযোগপত্রটি ‘দেখিলাম’ বলে ঢাকার সন্ত্রাসবিরোধী ট্রাইব্যুনালে বদলির আদেশ দিয়েছেন।

এর আগে গত ১১ এপ্রিল ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিমের আদালতে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের পরিদর্শক মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর ১০ আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করেন।

অভিযোগপত্রের ১০ আসামি হলেন রাকিবুল হাসান রিগ্যান, সালাহ উদ্দিন কামরান, আব্দুর রউফ প্রধান, আসলাম হোসেন ওরফ রাশেদ, শরিফুল ইসলাম, মামুনুর রশিদ রিপন, আজাদুল কবিরাজ, মুফতি মাওলানা আবুল কাশেম, আব্দুস সবুর খান ও হাসিদুর রহমান সাগর। এদের মধ্যে শরিফুল ইসলাম, মামুনুর রশিদ ও আজাদুল কবিরাজ পলাতক রয়েছেন। তাদের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির আবেদন করেছেন তদন্ত কর্মকর্তা।

মামলার নথি থেকে জানা যায়, ২০১৬ সালের ২৫ জুলাই রাজধানীর কল্যাণপুরের ৫ নম্বর সড়কের ‘জাহাজবাড়ি’ হিসেবে পরিচিত একটি বাড়িতে রাতভর জঙ্গিবিরোধী অভিযান চালায় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। সকালে এক ঘণ্টার মূল অভিযানে নয় জঙ্গি নিহত ও রিগ্যান নামের একজন আহত হন।

ঘটনার দুদিন পর মিরপুর মডেল থানার পরিদর্শক (অপারেশন) মো. শাহজালাল আলম সন্ত্রাসবিরোধী আইনে মামলা করেন। মামলায় ১০ জনকে আসামি করা হয়।

এ ছাড়া এ ঘটনায় জাহাজবাড়ির মালিকসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে পুলিশকে সঠিক তথ্য না দেওয়ার অভিযোগে ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিমের আদালতে অভিযোগপত্র দেয় পুলিশ। সে মামলা বর্তমানে ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিমের আদালতে বিচারাধীন রয়েছে।

Advertisement