Beta

ফণীর পরিবার পাচ্ছে নতুন ঘর

০৮ মে ২০১৯, ২১:২৯

ইউএনবি
ঘূর্ণিঝড় ফণীর সময় আশ্রয়কেন্দ্রে জন্ম নেওয়া ফণী আক্তারের পরিবারকে পাকা ঘর করে দেবে প্রশাসন। ছবি : প্রশাসন

ঘূর্ণিঝড় ফণী দেশে ব্যাপক আতঙ্ক সৃষ্টি করলেও খুলনার দাকোপ উপজেলার মাসুম গাজীর পরিবারের কাছে ধরা দিয়েছে আশীর্বাদ হয়ে। ঘূর্ণিঝড় ফণীর সময় তাঁর স্ত্রী জন্ম দিয়েছেন কন্যা সন্তান।

চালনা পৌরসভার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় সাইক্লোন শেল্টারে আশ্রয় নেওয়া মাসুম গাজীর স্ত্রী রেশমী ছিলেন অন্তঃসত্ত্বা। সেখানে তিনি জন্ম দেন কন্যা শিশুর। তার নাম রাখা হয় ‘ফণী আক্তার’।

ফণীর বাবা মাসুম গাজী জানান, ফণীর জন্মে তাদের ভাগ্য বদলে যাচ্ছে। প্রশাসনের পক্ষ থেকে খাস জমি ও বাড়ি উপহার পাচ্ছেন তারা। ফণী তাদের দ্বিতীয় সন্তান। প্রথম সন্তান মাসুমার বয়স পাঁচ বছর। তাঁরা ওয়াপদা বাঁধের ওপরই বসবাস করতেন।

মাসুম গাজী আরো জানান, ৩ মে বিকেল ৫টা ১০ মিনিটে আশ্রয়কেন্দ্রে ফণীর জন্ম হওয়ার পর ওই রাতেই তাকে দাকোপ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়। সেখান থেকে মা ও মেয়েকে বাড়িতে আনা হয় ৫ মে। আর ৬ মে প্রশাসন থেকে উপহারসামগ্রী প্রদান করাসহ বাড়ি দেওয়ার ঘোষণা করা হয়। ৭ মে প্রশাসন বাড়ি তৈরির কাজ শুরু করেছে।

দাকোপ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আবদুল ওয়াদুদ বলেন, ফণীর পরিবারটি ওয়াপদার ওপর ঘর করে বাস করছে। এ পরিবারের জন্য পাশের একটি খাস জমিতে ঘর তৈরির কাজ মঙ্গলবার শুরু করা হয়েছে, যা দ্রুত সম্পন্ন করে ফণীর পরিবারকে বুঝিয়ে দেওয়া হবে।

Advertisement