Beta

মাদক ব্যবসা ছাড়তে শপথ নিলেন কুষ্টিয়ার ২২২ জন

০৬ মে ২০১৯, ২২:২৫

সাবিনা ইয়াসমিন শ্যামলী, কুষ্টিয়া
সোমবার কুষ্টিয়ায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামালের হাত থেকে শুভেচ্ছা স্বরূপ ফুল উপহার নেন মাদক ব্যবসা থেকে সরে আসার শপথ নেওয়া এক ব্যক্তি। ছবি : এনটিভি

মাদক ব্যবসা না করার শপথ নিয়েছেন কুষ্টিয়ার ২২২ জন্য ব্যবসায়ী। সোমবার জেলা পুলিশের আয়োজনে কুষ্টিয়া স্টেডিয়ামে মাদকবিরোধী ও সম্প্রীতি সমাবেশে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মো. আসাদুজ্জামান খাঁন কামালের কাছে এ শপথ নেন তারা।

সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তৃতাকালে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, যেকোনো মূল্যে মাদক প্রতিহত করা হবে, এ জন্য প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে আমরা কাজ করছি। এরই মধ্যে মাদক নিয়ন্ত্রণে নতুন আইন করা হয়েছে। এ ছাড়া সরকারি চাকরিতে প্রবেশে মাদক পরীক্ষার বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে। যারা মাদক নেন, এই ডোপ টেস্টে ধরা পড়লে তাদের সরকারি চাকরি হবে না।

মন্ত্রী বলেন, ‘যারা মাদক ছেড়ে স্বাভাবিক জীবনে আসছে, তাদেরকে আমরা পুনর্বাসন করছি। আমরা আর ঐশী তৈরি করতে চাই না, আমরা যে বাংলাদেশ সৃষ্টি করেছি তা হারাতে চাই না।’

সমাবেশের বিশেষ অতিথি আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল-আলম হানিফ সাংবাদিকদের বলেন, যেসব মাদক ব্যবসায়ী শপথ নিয়েছেন তারা আবারও যদি মাদকের সঙ্গে জড়িত হয় তবে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এ সময় হানিফ বলেন, শুধু সংসদে যোগ না দেওয়াই নয়, বিএনপির গোটা রাজনীতিই ভুলে ভরা। হ্যামিলনের বাঁশি হয়তো বিএনপি বাজাতে পারে, তবে সেই বাঁশিকে দেশের জনগণ সমর্থন দেবে না।

প্রতারক মাল্টিলেভেল কোম্পানি ‘ইউনিপে-টু-ইউ’ সম্পর্কে এক প্রশ্নের জবাবে হানিফ বলেন, মানুষের টাকা আত্মসাৎকারী কোম্পানির বিরুদ্ধে সরকার এরই মধ্যে কঠোর ব্যবস্থা নিয়েছে। যারা এর সঙ্গে জড়িত তাদের বিরুদ্ধে আদালতের মাধ্যমে শাস্তির ব্যবস্থা করা হবে। প্রতারিত হওয়া মানুষরা যাতে করে তাদের টাকা ফেরত পায়, আশা করি আদালত সেই ব্যবস্থা নেবে।

অনুষ্ঠানে প্রধান আলোচকের বক্তব্যে পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী মাদক ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে কঠোর হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, সন্ত্রাস ও যুদ্ধাপরাধী জঙ্গিদের বিরুদ্ধে বিজয়ী হওয়ার পর ২০১৯ সালে আমরা মাদকের বিরুদ্ধে যুদ্ধ শুরু করি। আশা করছি এই যুদ্ধেও আমরা বিজয়ী হব।

অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য দেন কুষ্টিয়া-১ (দৌলতপুর) আসনের সংসদ সদস্য আ ক ম সারোয়ার জাহান বাদশা, কুষ্টিয়া-৪ (কুমারখালী-খোকসা) আসনের সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার সেলিম আলতাফ জর্জ, কুষ্টিয়ার জেলা প্রশাসক আসলাম হোসেন প্রমুখ।

Advertisement