Beta

‘ফণী মোকাবিলায় সরকারের পাশাপাশি প্রস্তুত আ.লীগ’

০৩ মে ২০১৯, ১৯:১৭ | আপডেট: ০৩ মে ২০১৯, ১৯:১৯

বাসস
আজ শুক্রবার সকালে রাজধানীর ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার রাজনৈতিক কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য দেন দলের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ। ছবি : এনটিভি

আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল-আলম হানিফ বলেছেন, ‘ঘূর্ণিঝড় ফণীর ধ্বংসলীলা মোকাবিলা করার জন্য সরকারের পাশাপাশি আওয়ামী লীগও প্রস্তুত রয়েছে।’ তিনি বলেন, ‘বিএনপি মানুষের দুর্ভোগ নিয়ে নোংরা রাজনীতি করার চেষ্টা করছে। অথচ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘূর্ণিঝড় মোকাবিলায় সার্বক্ষণিক প্রয়োজনীয় নির্দেশ দিচ্ছেন।’

তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দক্ষতা ও বিচক্ষণতায় বর্তমানে যে কোন ধরনের প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবেলায় সরকার অনেক বেশি সক্ষম। ভারতের উড়িষ্যায় ফণী আঘাত হেনেছে, রাতে আমাদের দেশে আঘাত হানতে পারে। এ সময় ফণীর গতি অনেকটাই কমে যাবে। তাই এটা নিয়ে আতঙ্কিত হওয়ার কোন কারণ নেই।’

আজ শুক্রবার রাজধানীর ধানমণ্ডির আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার রাজনৈতিক কার্যালয়ে ঘূর্ণিঝড় ‘ ফণী ’ মোকাবিলার প্রস্তুতি নিয়ে আয়োজিত দলের সম্পাদকমণ্ডলীর এক জরুরি সভা শেষে সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন হানিফ।

হানিফ বলেন, ‘সরকারের পাশাপাশি যে কোন ধরনের পরিস্থিতি মোকাবিলায় আমরাও প্রস্তুত রয়েছি। শুধুমাত্র ঘূর্ণিঝড়ের সর্বোচ্চ সতর্কতা জারির সঙ্গে সঙ্গে অবহেলা না করে সকলকে নিরাপদ স্থানে যাওয়ার জন্য অনুরোধ জানাচ্ছি।’

এ সময় আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানক, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন, আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, একেএম এনামুল হক শামীম, ত্রাণ ও সমাজকল্যান সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন, কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক ফরিদুন নাহার লাইলী ও কেন্দ্রীয় কার্য নির্বাহী সংসদের সদস্য মির্জা আজম প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।

তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রশাসন ও আমাদের সঙ্গে সার্বক্ষণিক যোগাযোগ রাখছেন এবং প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দিচ্ছেন।’

তিনি বলেন, ‘ফণির যে কোন ধরনের ধ্বংসলীলা মোকাবেলায় সরকারের শীর্ষ পর্যায়ের কর্মকর্তারা দেশের উপকূলীয় এলাকার ১৯টি জেলার কর্মকর্তাদের প্রয়োজনীয় নির্দেশ প্রদান করেছেন। এ জেলাগুলোর সরকারী কর্মকর্তা, বিআইডব্লিউটিএ ও পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তা কর্মচারীদের ছুটি বাতিল করা হয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘দুর্যোগ মোকাবেলার জন্য সকল নৌযান বন্ধ রাখা হয়েছে, সাইক্লোন শেল্টার প্রস্তুত রাখা হয়েছে এবং সরকারী স্কুল, কলেজ ও মাদ্রাসার প্রধানদের চাবি হাতে নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানে হাজির থাকতে বলা হয়েছে। দুর্যোগের জন্য যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হলে শুকনো খাবার, বিশুদ্ধ পানি ও মেডিকেল টিম রাখা হয়েছে।’

হানিফ বলেন, ‘আমরা উপকূলীয় জেলাগুলোতে প্রশাসনের পাশাপাশি দলীয় নেতা-কর্মীদেরও যে কোন পরিস্থিতি মোকাবিলায় প্রস্তুত থাকার নির্দেশ দিয়েছি। প্রশাসনের পাশাপাশি তারাও দুর্যোগ মোকাবেলায় কাজ করবে।’

তিনি বলেন, ‘আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে ঘূর্নিঝড় ফণীর সার্বক্ষনিক পর্যবেক্ষণের জন্য একটি মনিটরিং টিম গঠন করা হয়েছে। আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য ড. ফখরুল ইসলাম মুন্সী ও ত্রাণ ও সমাজকল্যান সম্পাদক সুজিত রায়ের নেতৃত্বে ১৬ সদস্য বিশিষ্ট এ কমিটি সার্বক্ষনিক মনিটরিং করবেন।

তিনি আরো বলেন, ‘ঘূর্নিঝড়ের যে কোন তথ্য জানাতে ৯৬৭৭৮৮১ ও ৯৬৭৭৮৮২ নাম্বারে যে কেউ যোগাযোগ করতে পারবেন।’

আওয়ামী লীগের অন্যতম মুখপাত্র হানিফ বলেন, ‘সার্বিক পরিস্থিতি মনিটরিংয়ে আমাকেসহ দলের সিনিয়র নেতাদের নিয়ে একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটির সদস্যরা হলেন, আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য আমির হোসেন আমু, তোফায়েল আহমেদ, ফখরুল ইসলাম মুন্সী, সভাপতিমন্ডলীর সদস্য বেগম মতিয়া চৌধুরী, ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন, কেন্দ্রীয় কার্য নির্বাহী সংসদের সদস্য আবুল হাসনাত আব্দুল্লাহ, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানক, আব্দুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, একেএম এনামুল হক শামীম, আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন, ব্যারিস্টার মুহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, প্রচার সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডা. রোকেয়া সুলতানা, কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক ফরিদুন নাহার লাইলী, কেন্দ্রীয় কার্য নির্বাহী সংসদের সদস্য মির্জা আজম ও এস এম কামাল হোসেন।’

হানিফ বলেন, খুলনা, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদকরাও সার্বক্ষণিক দায়িত্ব পালন করবেন।

তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শুক্রবারের জুমা নামাজের পর যাতে ঘূর্নিঝড় ফনির আঘাতে কোন ধরনের ক্ষয়ক্ষতি না হয় সেজন্য বিশেষ মোনাজাত করতে সকলের প্রতি আহবান জানিয়েছেন।’

মানুষের দুর্ভোগ নিয়ে নোংরা রাজনীতি না করতে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের প্রতি আহবান জানান তিনি।

Advertisement