Beta

নড়াইলে কুয়েত আ.লীগের নেতাকে কুপিয়ে হত্যা

২৭ এপ্রিল ২০১৯, ২২:৫৯

এম. মুনীর চৌধুরী, নড়াইল
নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলায় হত্যার শিকার কুয়েত আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ মিজানুর রহমান। ছবি : সংগৃহীত

নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলা পরিষদের নির্বাচনের জের ধরে কুয়েত আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ মিজানুর রহমানকে (৫০) কুপিয়ে হত্যা করেছে প্রতিপক্ষরা। এ সময় মিজানের ভাতিজা সৈয়দ সাচ্চুকেও (৩০) কুপিয়ে জখম করা হয়। আজ শনিবার বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত সৈয়দ মিজান লোহাগড়ার নোয়াগ্রামের বাসিন্দা ছিলেন। আহত সাচ্চুকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এলাকাবাসী জানায়, সদ্য শেষ হওয়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে বিজয়ী হন লোহাগড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সিকদার আব্দুল হান্নান রুনু। কমিটির সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ ফয়জুল আমির লিটু বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করে পরাজিত হন।

কুয়েত আওয়ামী লীগের নেতা ও উপজেলার নোয়াগ্রামের বাসিন্দা সৈয়দ মিজান উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের সময় সিকদার আব্দুল হান্নানের পক্ষে কাজ করায় ক্ষিপ্ত হন অপর প্রার্থী সৈয়দ ফয়জুল আমির লিটুর সমর্থকরা।

এ ঘটনার জের ধরে লিটুর সমর্থকরা শনিবার বিকেলে সৈয়দ মিজানের বাড়িতে হামলা চালিয়ে তাঁকে কুপিয়ে গুরুতর জখম করে। স্থানীয়রা উদ্ধার করে লোহাগড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনায় নিহতের ভাতিজা সৈয়দ সাচ্চু আহত হন।

লোহাগড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) প্রবীর বিশ্বাস ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এলাকায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

Advertisement